শ্রীকৃষ্ণের অনুপ্রেরণায় ‘জ্যাক স্প্যারো’?

শ্রীকৃষ্ণের অনুপ্রেরণায় ‘জ্যাক স্প্যারো’?
Content TOP

মুক্তির পরই দারুণ জনপ্রিয়তা পায় ‘পাইরেট অব দ্য ক্যারিবিয়ান’ ছবিটি। ২০০৩ সালে ‘পাইরেট অব দ্য ক্যারিবিয়ান: দ্য কার্স অব দ্য ব্লাক পার্ল’-এর জনপ্রিয়তা দেখে নির্মাতা ঘোষণা দেন, আরও তিনটি ছবি বানাবেন তিনি। পরে নির্মিত হয় ‘ডেড ম্যানস চেস্ট, অ্যাট ওয়ার্ল্ডস এন্ড অ্যান্ড অন স্ট্রেঞ্জার টাইডস’। ‘পাইরেট অব দ্য ক্যারিবিয়ান’ ছবির প্রধান চরিত্র ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারোর ভূমিকায় অভিনয় করেন জনি ডেপ। অভাবনীয় জনপ্রিয়তা পায় চরিত্রটি। সম্প্রতি জানা গেছে, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দেবতা শ্রীকৃষ্ণের চরিত্রের অনুপ্রেরণায় নাকি লেখা হয়েছিল জ্যাক স্প্যারোর চরিত্রটি।

জনপ্রিয় চরিত্র জ্যাক স্প্যারো দর্শকদের ওপর দারুণ প্রভাব সৃষ্টি করে। কাল্পনিক এ চরিত্রটি সৃষ্টি করেছিলেন চিত্রনাট্যকার টেড এলিয়ট ও টেরি রসিও। মজার কথা হচ্ছে, শ্রীকৃষ্ণের চরিত্র থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই নাকি তাঁরা এ চরিত্রটি সৃষ্টি করেছিলেন।

তীক্ষ্ণ বুদ্ধি ও শক্তির কারণে শ্রীকৃষ্ণ মানুষের কাছে জনপ্রিয়। এলিয়ট ও রসিওকে অনুপ্রাণিত করেছিল শ্রীকৃষ্ণ। এলিয়ট জানিয়েছেন, ‘পাইরেট অব দ্য ক্যারিবিয়ান’ ছবির জ্যাক স্প্যারো চরিত্রটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সনাতন ধর্মের গুরুত্বপূর্ণ দেবতা শ্রীকৃষ্ণের চরিত্রের ছায়া অবলম্বনে এটি লেখা হয়েছে। চরিত্রটি লেখার সময় তাঁরা শ্রীকৃষ্ণের অনেক ঘটনাকে মাথায় রেখেছিলেন। ফলে জ্যাক স্প্যারোকে চিত্রায়ণে তাঁদের সুবিধা হয়েছে।

‘পাইরেট অব দ্য ক্যারিবিয়ান’ ছবিতে জ্যাক স্প্যারো ৯ জলদস্যুর সর্দার। সাত সাগরের এই জলদস্যু অবশ্য শক্তির জোরে নয়, বরং বুদ্ধি ও সম্মোহনের জোরে অন্য দস্যুদের হারিয়ে দেয়। ডেকান ক্রনিকল

Content TOP

Related posts

Leave a Reply

body banner camera