brandbazaar globaire air conditioner

পরকীয়ার জেরে স্বামীকে হত্যা’ করে মাটিচাপা, ৩ মাস পর উদ্ধার

পরকীয়ার জেরে স্বামীকে হত্যা’ করে মাটিচাপা, ৩ মাস পর উদ্ধার
epsoon tv 1

 

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় নিখোঁজের প্রায় ৩ মাস পর মাটির নিচ থেকে কাঠ মিস্ত্রির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ ওই কাঠ মিস্ত্রীর স্ত্রীসহ ৪ জনকে আটক করেছে। স্ত্রীর পরকীয়ার জেরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি নিহতের পরিবারের।

মঙ্গলবার (২৬ মে) বিকাল সাড়ে ৫ টায় উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের তালপুকুরিয়া গ্রামের বিলের মধ্যে একটি মাছের ঘের পাড় থেকে মাটি চাপা দেয়া অবস্থায় পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত মরদেহটি ওই গ্রামের কেনারাম বাড়ৈর ছেলে কমলেশ বাড়ৈর (৪৫)। তিনি কাঠ মিন্ত্রীর কাজ করতেন।

কমলেশ বাড়ৈর ভাই রবেণ বাড়ৈ জানান, কমলেশের স্ত্রী সুবর্ণা বাড়ৈ (৪০) এর সাথে প্রতিবেশী মাছের ঘের ব্যবসায়ী মম্মথ বাড়ৈর দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া ও মনোমালিন্য চলতো। এ ঘটনায় এলাকায় একাধিকবার সালিশ বৈঠক করা হয়। কিন্তু, এতেও কোন কাজ হয়নি। সুবর্ণা পরকীয়া প্রেমিকের সাথে কমলেশকে হত্যার পরিকল্পনা করে। ফেব্রুয়ারি মাসের শেষের দিকে কমলেশ নিখোঁজ হয়।

তিনি আরো বলেন, কমলেশের নিখোঁজের ঘটনায় গত ৩ মার্চ কোটালীপাড়া থানায় একটি জিডি করা হয়। জিডির সূত্রধরে পুলিশ তদন্তে নামে। গ্রামের বিভিন্ন জনকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে মঙ্গলবার মম্মথর মাছের ঘেরের পাড়ে গ্রামের বিপুল বাড়ৈ নামে এক লোক ঘাস কাটতে গিয়ে মাটি খোঁড়া দেখতে পান। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মাটি খুঁড়ে কমলেশের মরদেহ উদ্ধার করে।

তিনি আরও জানান, সুবর্ণা পরকীয়া প্রেমিক মম্মথর সহযোগিতায় কমলেশকে হত্যা করে মরদেহ ঘের পাড়ে মাটি চাপা দিয়ে রাখে। তিনি দোষীদের গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।

কোটালীপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ লুৎফর রহমান বলেন, প্রাথমিক তদন্তে ধারণা করা হচ্ছে, পরকীয়া প্রেমের জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটতে পরে। এ ঘটনায় জড়িত কমলেশের স্ত্রী সুবর্ণা বাড়ৈ, সুবর্ণার পরকীয়া প্রেমিক মম্মথ বাড়ৈর ভাই কৃষ্ণ বাড়ৈ, সহযোগী বিষ্ণু বাড়ৈ ও মম্মথর বন্ধু কালু বাড়ৈকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধারের পর কমলেশের স্ত্রী সুবর্ণা কমলেশের মরদেহ সনাক্ত করেন। ***

উদ্ধারকৃত মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরও জানান, প্রধান অভিযুক্ত মম্মথ বাড়ৈকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে।

 

epsoon tv 1

Related posts

body banner camera