নবাবগঞ্জে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে বিএনপির নাশকতা মামলা!

নবাবগঞ্জে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে বিএনপির নাশকতা মামলা!
Content TOP

হাজতী, বিদেশে অবস্থানকারীরাও আসামী

বিপ্লব ঘোষ, জেলা প্রতিনিধি, (ঢাকা).
ঢাকার নবাবগঞ্জে বিএনপি নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নামে করা একটি নাশকতা মামলায় এক যুবলীগ নেতাকে আসামী করা হয়েছে। তাছাড়া বিদেশে অবস্থানকারী, হাজতী, প্রধান শিক্ষক, ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের নামও রয়েছে পুলিশের ঐ এফআইআরে।
গত ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশের করা ঐ মামলায় ১৩২ জনের নামসহ অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামী করা হয়েছে। সূত্র: নবাবগঞ্জ থানা মামলা নং ৭।
মামলার এফআইআর অনুসন্ধানে দেখা গেছে, ১০৪নং আসামী মো. রওনক উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি বলে জানা যায়। এব্যাপারে উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নূরআলম রওনকের রাজনৈতিক পরিচয় নিশ্চিত করে বলেন, মামলার বিষয়টি জানা ছিল না। রওনক দীর্ঘদিন যাবত যুবলীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত রয়েছেন। এব্যাপারে খোঁজ নেয়া হবে।
১৩১নং আসামী মো. জয়নাল আবেদিন গালিমপুর রহমানিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। তার ব্যাপারে স্থানীয় একজন মুক্তিযোদ্ধা নাম প্রকাশ না করা শর্তে বলেন, জয়নাল আবেদিনকে কখনো রাজনীতি করতে দেখিনি বা কোন রকম সম্পৃক্ততা হতেও দেখিনি। বিষয়টি উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলে মনে হচ্ছে।

১৩২নং আসামী মো. ইয়াসিন আলী সরকারী দোহার নবাবগঞ্জ কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ বলে জানা গেছে।
অপরদিকে, মামলার ৫১নং আসামী রাসেদ কামাল এই মামলা রজুর ১০দিন আগে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে রমনা মডেল থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে বলে একটি সূত্রে জানা গেছে। সূত্র আরও জানায়, তিনি ঐ থানা পুলিশের একটি মামলায় এখনো জেল হাজতেই রয়েছেন। সূত্র: রমনা মডেল থানা মামলা নং২৩, তারিখ: ১০/০৯/২০১৮।
তাছাড়াও মামলার ৪১নং আসামী গাজী শফিউদ্দিন গত ১৮ সেপ্টেম্বর সৌদি আরব চলে গেছেন বলে তার স্বজরা নিশ্চিত করেছেন। ১২২নং আসামী মো. মহিউদ্দিন গত ১৬ সেপ্টেম্বর ভারতে গিয়েছিলেন। ২৩ সেপ্টেম্বর তিনি দেশে ফিরেছেন বলে স্বজনরা নিশ্চিত করেন। ৭৩নং আসামী মো. হুমায়ুন চৌধুরী গত ৩মাস যাবত ব্যবসার কাজে সৌদিআরব আছেন বলে পরিবার সূত্র জানা গেছে।
এবিষয়ে মামলার বাদী নবাবগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক মো. আল-আমীন বলেন, ভুল হতেই পারে। যাচাই-বাছাই করে আসামীদের গ্রেপ্তার করা হবে।
নবাবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তফা কামাল এবিষয়ে বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
মামলাটিকে গায়েবি দাবী করে ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক বলেন, সামনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। বিএনপি নেতাকর্মীদের ঘর ছাড়া করতে এ ধরণের গায়েবী মামলা করা হয়েছে।

Content TOP

Related posts

Leave a Reply

body banner camera