ব্রেকিং নিউজঃ

দৈনিক আগামীর সময়ে সংবাদ প্রকাশ, পদ্মার তীরজুড়ে অভিযান ড্রেজার ব্যবসায়ীকে জরিমানা

দৈনিক আগামীর সময়ে সংবাদ প্রকাশ, পদ্মার তীরজুড়ে অভিযান ড্রেজার ব্যবসায়ীকে জরিমানা
Content TOP


মাহবুবুর রহমান টিপু,বিশেষ(ঢাকা)প্রতিনিধি:

 

দোহার উপজেলার মৈনট ঘাট এলাকায় পদ্মা নদীর তীরবর্তি বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে ড্রেজারের মাধ্যমে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে প্রভাবশালী আওয়ামীলীগ নেতাকে আটক করে এক লক্ষ টাকা জরিমানা আদায় করেছে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার(ভুমি)সালমা খাতুন।
ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা প্রদানকারী হলেন উপজেলার কার্তিকপুর গ্রামের মৃত রহমান খাঁ ছেলে বাহার খাঁ(৫৮)।তিনি কুসুমহাটি ইউনিয়ন ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি।
জানা যায়,মাসখানেক ধরে কোন রকম সরকারি অনুমতির তোয়াক্কা না করেই নদীর তীরবর্তী এলাকায় শ্যালো মেশিন,বালু কাটার মেশিন ও ড্রেজিং বসিয়ে নদীর বুকচিরে বালু উত্তোলন করছে এই বালুখেঁকোরা।মৈনটঘাটের প্রভাবশালী বাহার খাঁর নেতৃত্বে মৈনটঘাট পদ্মা নদীর তীর এলাকার বিভিন্ন পয়েন্টে দিনে-রাতে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু তুলে তা আবার মৈনট ঘাট এলাকায় বালুর পাহাড় স্তুপ করে প্রতিদিন শতাধিক অবৈধ ট্রাকের মাধ্যমে ১৩০০ টাকা থেকে ১৫০০ টাকা দরে চড়া মূল্যে বিক্রি করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।ফলে নদী তীরবর্তী জনবসতির এলাকাসহ কৃষি ও আবাদি জমি ভাঙনের আশংকায় ভীত হয়ে পড়েছে স্থানীয় নদীতীরবর্তী এলাকাবাসী।সংবাদটি দৈনিক আগামীর সময়ে সংবাদ প্রকাশের পর গতকাল সোমবার বিকালে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার(ভুমি)সালমা খাতুন অভিযান পরিচালনা করেন।এ সময়ে দোহার থানার এস আই নুর খান সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স নিয়ে নদীতীরবর্তি এলাকায় ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের সময় প্রভাবশালী আওয়ামীলীগ নেতা বাহার খাঁ ও সঙ্গীয় আটজনকে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্দেশে পুলিশ আটক করেন।পরবর্তীতে রাত সাড়ে আটটার দিকে বাহার খাঁকে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করলে নিজের দোষ স্বীকার করেন এবং ভবিষ্যতে এ রকম কোন কর্মকান্ডে জড়িত হবেন না বলে বন্ড প্রদান করেন।এ সময়ে ভ্রাম্যমান আদালত তাকে নগদ এক লক্ষ টাকা জরিমানা প্রদানের নির্দেশ দেন।রশিদের মাধ্যমে টাকা জমা নিয়ে প্রভাবশালী বাহার খাঁকে মুক্তি দেন ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট সালমা খাতুন।
এ বিষয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার(ভুমি)সালমা খাতুন জানান,রাজনৈতিক প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় হাতেগনা কয়েকবালু ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে পদ্মা নদীতে ১০/১২টি ড্রেজিং মেশিন বসিয়ে দিনে ও রাতে নদী তীরবর্তী এলাকায় মাটি কেটে তা পাহাড় সমান বালুর ¯ুÍপ তৈরী করে প্রকাশ্যে বালু বিক্রী করছে সংবাদটি জানার পর থেকেই আমি হাতেনাতে বিষয়টি ধরার জন্য অপেক্ষা করতে থাকি।আজ বিকালে নদীর তীরবর্তিতে ড্রেজার মেশিন বসালে আমি অভিযান পরিচালনা করি।ড্রেজার মেশিনটি জব্দ করা হয়েছে।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আফরোজা আক্তার রিবা বলেন,কোন অবৈধ বালু ব্যবসায়ীকেই ছাড় দেওয়া হবে না,অভিযান চলবে।
দোহার,ঢাকা। মাহবুবুর রহমান টিপু, ছবি ক্যাপসুন মৈনটঘাট এলাকা থেকে তোলা।

 

Content TOP

Related posts

Leave a Reply

body banner camera