ডোপিংয়ের দায়ে নিষিদ্ধ শেহজাদ, সামনে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য

ডোপিংয়ের দায়ে নিষিদ্ধ শেহজাদ, সামনে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য
Content TOP

পাকিস্তান ক্রিকেটের সাথে ‘কেলেঙ্কারি’র সম্পর্কটা বেশ পুরনো। সম্প্রতি সেই তালিকায় নাম লিখেছেন দেশটির তারকা ওপেনার আহমেদ শেহজাদ। ডোপিংয়ের দায়ে এই ড্যাশিং ব্যাটসম্যানকে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন। আর এবার সেই ঘটনায় সামনে এলো চাঞ্চল্যকর এক তথ্য।

নিষিদ্ধ হওয়ার দিন তিনেকের মধ্যেই শেহজাদ জানিয়েছেন, ভুল করে তিনি মায়ের ক্যানসারের ওষুধ খাওয়াতেই বিপত্তি ঘটেছে। ডোপ টেস্টে তাঁর শরীরে নিষিদ্ধ বস্তু পাওয়া গেছে।

পাকিস্তানের ওপেনার শেহজাদ জানিয়েছেন, ৩ মে ঘুম থেকে ওঠার পর থেকেই তাঁর মাথা নাকি ঘুরাতে শুরু করেছিল। কারণ হিসেবে শেহজাদের বক্তব্য, স্ত্রী সানা আহমেদের কাছে তিনি ‘গ্রাভিনেট’ ওষুধ চেয়েছিলেন। সেই সময়ে স্ত্রী তাঁকে ভুল করে তাঁর ক্যানসার আক্রান্ত মায়ের ওষুধ দেন। সেই ওষুধ আসলে ছিল ক্যানসারের। শেহজাদ সেই ওষুধ না দেখেই তা খেয়ে নেন। আর এতেই হয় যত সমস্যা। সংশ্লিষ্ট দিন পাকিস্তান লিগ ম্যাচের পর ডোপ টেস্ট করা হয়। শেহজাদের রক্তে নিষিদ্ধ বস্তুর নমুনা পাওয়া যায়। আর এর জন্যই শেহজাদকে নিষিদ্ধ করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

Content TOP

Related posts

Leave a Reply

body banner camera