brandbazaar globaire air conditioner
ব্রেকিং নিউজঃ

ক্যান্সার-হৃদরোগ-স্ট্রোকের ঝুঁকি? সুরক্ষা দেবে কফি

ক্যান্সার-হৃদরোগ-স্ট্রোকের ঝুঁকি? সুরক্ষা দেবে কফি
epsoon tv 1

অনেকেই ভেবে থাকেন, কফি পান করা লিভারের জন্য ক্ষতিকর। কিন্তু সম্প্রতি বেশ কয়েকটি গবেষণায় এ তথ্য ভুল প্রমাণিত হয়েছে। শুধু তাই নয়, কফি এমন একটি উত্তম পানীয় যা হৃদরোগ, পার্কিনসনসসহ নানা জটিল রোগে রক্ষাকবচ হিসেবে কাজ করে।

সমীক্ষা বলছে-
১.কফি আপনাকে বিভিন্ন ধরনের রোগের আক্রমণ থেকে রক্ষা করবে। বিশেষজ্ঞরা জানান, প্র্রতিদিন সর্বোচ্চ ৬ কাপ কফি পান সুস্বাস্থ্যের জন্য নিরাপদ।

২.কফি আপনার হৃদরোগ ও ষ্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমাতে দারুন সহায়ক।

 

৩.এই পানীয় টাইপ-২ ডায়াবেটিসের হাত থেকে রক্ষা করবে।

৪. শরীরে ক্ষতিকর ‘গলষ্টোন’ তৈরীতে বাঁধা দেয় কফি।

৫.পার্কিনসনস রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমায় এই উত্তম পানীয়।

৬.গ্রহণযোগ্যমাত্রায় কফি পানে আপনার লিভারের ক্ষতিতো দূরের কথা বরং এই অঙ্গকে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করবে। রাসায়নিক প্রক্রিয়ার গতি বাড়িয়ে কফি ওষুধ ভাঙ্গতে লিভারকে সহায়তা করে।

৮.এটি কিছু অ্যানজাইমের মাত্রা কমায় যেগুলো লিভারকে ক্ষতিগ্রস্ত করে।এর ফলে লিভার ক্যান্সার ও সিরোসিসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কমবে আপনার।

৯. ডিউক ইউনিভার্সিটির এক সমীক্ষায় জানা গেছে, ৪ কাপ পরিমান কফিতে যে ক্যাফেইন থাকে তা লিভারের ‘নন-অ্যালকোহলিক ফ্যাটি’ নামের রোগের বিরুদ্ধে রক্ষাকবচ হিসেবে কাজ করে।

১০. এই পানীয়ের রয়েছে প্রদাহ ও ক্যান্সাররোধী গুণাবলী। কারণ, কফিতে রয়েছে ‘কাহোয়েল’ ও ক্যাফেষ্টল নামের বিশেষ দুটি উপাদান

শুধু তাই নয়, গবেষণাপত্র বলছে, কফি বীজে রয়েছে এন্টি-অক্সিডেন্টসহ ১০০০ সক্রিয় উপাদান, যেগুলো শরীরের ক্ষতিকর র‌্যাডিকেল-র বিরুদ্ধে লড়াই করে। আমরা জানি, রেডিক্যালগুলো শরীরের কোষগুলোকে ধ্বংস করে।

তাই, নিয়মিত কফি পান করুন, সুস্থ্য থাকুন।

তথ্যসূত্র: ফিলষ্টার গ্লোবাল, হিন্দুস্তান টাইমস

epsoon tv 1

Related posts

Leave a Reply

body banner camera