কোটা বহালের দাবিতে শাহবাগে অান্দোলন চলছে

কোটা বহালের দাবিতে শাহবাগে অান্দোলন চলছে
Content TOP

সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা ও প্রতিবন্ধী কোটা পুনর্বহালের দাবিতে রোববারও রাজধানীর শাহবাগ মোড় অবরোধ করে আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে ‘মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ’ এবং ‘বাংলাদেশ প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ঐক্য পরিষদ’। পৃথকভাবে সংগঠন দুটি তাদের অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে।

প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের অবস্থান রোববার দুপুর ১২টায় শুরু হয়, যা রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে বলে আন্দোলনকারীদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। অন্যদিকে দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত ‘মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ’ তাদের অবস্থান কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। শনিবার বিকেল ৩টা থেকে তাদের টানা কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। সোমবারের মধ্যে কোটা পুনর্বহালের প্রজ্ঞাপন জারির আল্টিমেটাম দিয়েছে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক বিভিন্ন সংগঠনের এই প্ল্যাটফর্ম।

রোববার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে শাহবাগ মোড়ে গিয়ে দেখা যায়, ‘মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ’ ব্যানারে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক বিভিন্ন সংগঠনের কর্মীরা একপাশে এবং প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা অন্য পাশে সারিবদ্ধভাবে অবস্থান নিয়েছে। চারপাশের সব রাস্তা ট্রাফিক পুলিশের ব্যবহৃত বহনযোগ্য রোড ডিভাইডার দিয়ে আটকে দিয়ে ভেতরে অবস্থান নেন বিক্ষোভকারীরা। এতে আশেপাশের সড়কগুলোতে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে অ্যাম্বুলেন্সসহ জরুরি সেবার যানগুলো চলতে দেখা গেছে। এছাড়া বাংলামোটর থেকে শাহবাগ হয়ে মৎসভবন অভিমুখী কিছু কিছু যান সড়কের একপাশ দিয়ে চলাচল করতে দেখা যায়।

মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহালের দাবিতে রোববার শাহবাড় মোড়ে সড়ক অবরোধ করে চলছে আন্দোলন— ফোকাস বাংলা

‘মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চে’র সমাবেশে ‘মুক্তিযোদ্ধা পরিবার কল্যাণ পরিষদে’র সভাপতি ও দৈনিক আজকের সূর্যোদয়ের প্রধান সম্পাদক খোন্দকার মোজাম্মেল হক বলেন, মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিলের পেছনে আমলাতন্ত্রের ষড়যন্ত্র কাজ করেছে। সব ষড়যন্ত্র ছিন্ন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অবশ্যই কোটা পুনর্বহাল করবেন।

সোমবারের মন্ত্রিসভার বৈঠকেই কোটা পুনর্বহাল করে জীবিত মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান ফিরিয়ে দেওয়া হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

বাংলাদেশ প্রজন্ম সংসদের সভাপতি এ এন এম ওয়ালীউর রহমান মোল্লা সমকালকে জানান, টানা অবস্থান কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। রাতেও তারা শাহবাগে থাকবেন। প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা তাদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে কর্মসূচি পালন করছে বলে তিনি দাবি করেন।

তবে এ প্রসঙ্গে ভিন্ন বক্তব্য দিয়েছে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ঐক্য পরিষদ। পরিষদের আহ্বায়ক আলী হোসেন সমকালকে বলেন, প্রতিবন্ধীদের ৫ ভাগ কোটা সংরক্ষণসহ ১১ দফা দাবিতে রোববার বেলা ১২টায় তারা শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নিয়েছেন। আবার রাত ৮টার মধ্যে তারা সরে যাবেন। তাদের কর্মসূচির সঙ্গে ‘মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চে’র কোনো সম্পর্ক নেই।

প্রতিবন্ধী কোটা বহালের দাবিতে রোববার শাহবাড় মোড়ে সড়ক অবরোধ করে চলছে আন্দোলন— ফোকাস বাংলা

তিনি জানান, দাবি পূরণ না হলে সোমবার অনশনসহ আরও কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

গত বুধবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে সব ধরনের কোটা বাতিলের প্রস্তাব অনুমোদিত হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে রাস্তায় নামেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা। ওই রাতেই শাহবাগ চত্বরে অবস্থান নেয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড। তাদের সঙ্গে যোগ দেয় মুক্তিযোদ্ধা স্বজনদের বিভিন্ন সংগঠন। বৃহস্পতিবারও তাদের কর্মসূচি বহাল ছিল। ওই দিন কোটা বাতিলের পরিপত্র জারি করে সরকার।

পরদিন শুক্রবার মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষা থাকায় সকাল ৬টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত অবরোধ স্থগিত রাখা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালরে সমাবর্তন অনুষ্ঠানের জন্য শনিবার অবস্থান কর্মসূচি পিছিয়ে বিকেলে শাহবাগে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বেলা ৩টার পর আবার শাহবাগ মোড়ে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন আন্দোলনকারীরা।

Content TOP

Related posts

Leave a Reply

body banner camera