কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় রাউজান প্রবাসীর মৃত্যু

 কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় রাউজান প্রবাসীর মৃত্যু
Content TOP

আমির হামজা. রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি ॥

কাতারে মার্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় চট্টগ্রামের রাউজানের ্ধসঢ়;এক প্রবাসীর মৃত্যু হয়েছে। নিহত প্রবাসী ৯ নং পাহাড়তলী ইউনিয়নের , ঊনসত্তর পাড়া গ্রামের নুরা গাজীর বাড়ির মৃত শামসু মিয়া পুত্র মো. রাশেদুল ইসলাম(৩৮)। স্থানীয় লোকজন জানিয়েছে, গত বুধবার (৮-মে) বাংলাদেশ সময় বিকাল ৫টায় ডিউটি শেষ করে নিজ কোম্পানীর বাস যোগে বাসায় ফেরার পথে সড়কে দুর্ঘটনায় মারা যায়। ওই দুর্ঘটনায় তার সাথে আরোও দুই বাংলাদেশী নিহত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। রাশেদুল মৃত্যু খবর তার এক প্রবাসী স্বজনরা এই হত্ধসঢ়;াহতের বিষয়টি পরিবারকে সংবাদ দিলে গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। সরজমিনে নিহতের পরিবারের সাথে গিয়ে কথা বলে, তার মা জানান আমার ছেলের অনেক স্বপ্ন ছিল দেশে কিছু করতে না পেরে সেই বিদেশে গিয়ে পিতা-মাতা ভাই-বোনের ও ছেলে-মেয়ের মুখে হাসি ফুটাবে। পরিবারের লোকজন কিছুটা স্বাচ্ছন্দে জীবন-যাপন করবেন। কিন্তু সে স্বপ্ন আর পূরন হযণি আমার ছেলের , এক বছর হযণি তার বাবা মৃত্যু হয়েছে তার মধ্যে গত বুধবার কাতারে আমার ছেলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। এদিকে রাশেদুল নিহত হওয়ার সংবাদে তার বাড়িতে বইছে শোকের মাতম। তার এক ছেলে এক মেয়ে মধ্যে মো: রাসেল মাত্র ৮ বছর বয়স ২য় শ্রোণীতে পড়া-লেখা করেন সেই কিছুটা বুঝতে চেষ্ঠা করছেন তার আদরের বাবা আর নেই । ‘তখন তার চোখে অকালে পিতা হারা কান্ন্ধসঢ়;ার রোল।’ আর ছোট মেয়ে যার বয়স মাত্র ১১ বছর ফাতেমা সেই বুঝতে পারছেনা পিতা হার মানেটা কি, সেই তার দাদির সাথে মাটিতে পড়ে খেলনা করছেন। তার মা ও এলাকার মানুষ বিশ্বাসই করতে পারছেনা তাদের স্বপ্ন দেখানোর ছেলে আর নেই । এসময় তার মা ও এলাক্ধসঢ়;ার মানুষরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। গতকাল শুকরবার রাশেদুল বাড়িতে গিয়ে এমনই চিত্র দেখা যায়। এবিষয়ে জানতে চাইলে, এলাকার ইউপি সদস্য কামরুল ইসলাম বলেন, আমার এলাকার মৃত শামসু মিয়া ছেলে আমার স্কুলে বন্ধু রাশেদুল গত বুধবার কাতারে একটি কোম্পানি থেকে কাজ শেষ কর আসার পথে বেপরোয়া গতির একটি গাড়ি তাকে চাপা দিলে তিনি ঘটনাস্থলে নিহত হন। তবে তার মরদেহ দেশে ফিরিয়ে আনতে আমরা সহযোগীতা করছি।#আমির

Content TOP

Related posts

Leave a Reply

body banner camera