এ কী ভয়ংকর অভিযোগ মালিঙ্গার বিরুদ্ধে!

এ কী ভয়ংকর অভিযোগ মালিঙ্গার বিরুদ্ধে!
Content TOP

‘হ্যাশট্যাগ মিটু’ এর সুবাদে তারকাদের নানা সময়ের নানা কলঙ্ক উঠে আসছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। বিভিন্ন সময়ে তারকাদের কাছে যৌন হেনস্তার কথা সবাইকে জানিয়ে ভারমুক্ত হচ্ছেন ভুক্তভোগীরা। ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধেও নানা অভিযোগ উঠে আসছে

ফুটবল বিশ্ব গত দুই সপ্তাহ ধরেই ব্যস্ত রোনালদো ও তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা ধর্ষণ মামলা নিয়ে। এরই মাঝে গতকাল শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ও বর্তমান মন্ত্রী অর্জুনা রানাতুঙ্গার বিরুদ্ধে তোলা হয়েছে যৌন হেনস্তার অভিযোগ। ফেসবুক পোস্টে এক বিমানকর্মী দাবি করেন শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন অধিনায়ক ভারত-শ্রীলঙ্কা সিরিজ চলাকালীন সময়ে তাঁর শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেছিলেন। সে খবর তাজা থাকতে থাকতেই লাসিথ মালিঙ্গার বিপক্ষেও অভিযোগ উঠেছে। তাঁর কাছে হেনস্তার শিকার হওয়া এক নারী টুইটারকে আশ্রয় মেনে সে ঘটনা বর্ণনা করেছেন।

ভারতীয় প্লেব্যাক গায়িকা চিন্ময়ী শ্রীপদ টুইটারে ‘হ্যাশট্যাগ মিটু’ আন্দোলন নিয়ে বেশ সরব। অনেকেই আছেন যারা এখনো এই আন্দোলনেও সরাসরি নিজেদের নাম প্রকাশ করতে ভয় পাচ্ছেন। অনেকেই সামাজিক হেনস্তার ভয়ে নিজেদের ঘটনা প্রকাশ করতে চাচ্ছেন না। তাদের উদ্দেশ্যে একটি সুযোগ করে দিয়েছেন চিন্ময়ী। যৌন হেনস্তাকারীদের নাম জানিয়ে সে ঘটনা টুইটারে মেসেজ হিসেবে পাঠিয়ে দিচ্ছেন ভুক্তভোগীরা। আর সেটা প্রকাশ করছেন চিন্ময়ী। গত কয়েক বছরে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসে খেলা এক বিখ্যাত শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারের বর্ণনা দিয়েছেন এই ভুক্তভোগী। এ সময়ে মুম্বাইয়ে খেলা বিখ্যাত ক্রিকেটার মানেই শ্রীলঙ্কান পেসার লাসিথ মালিঙ্গা। তাই চিন্ময়ী তাঁর পোস্টে লিখে দিয়েছেন লাসিথ মালিঙ্গার নাম। আর সঙ্গে থাকা ছবিতে লেখা ছিল এ বার্তা,

‘আমি নাম প্রকাশ করতে চাচ্ছি না। কয়েক বছর আগে মুম্বাইয়ে ঘটেছিল এ ঘটনা। আমরা যে হোটেলে ছিলাম, সেখানে আমার বান্ধবীকে খুঁজছিলাম। এমন সময় খুবই বিখ্যাত এক শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারের সঙ্গে দেখা হলো। তখন আইপিএল চলছিল। তিনি বললেন, আমার বান্ধবী নাকি তার রুমেই আছে।’

‘আমি তার রুমে গেলাম, কিন্তু সেখানে আমার বান্ধবী ছিল না। সেই ক্রিকেটার তখন আমাকে ধাক্কা দিয়ে বিছানায় ফেলে দেয় এবং আমার মুখের ওপর চড়ে বসে। আমি বেশ লম্বা এবং আমি একটু স্থূলকায়। ফলে আমি তার সঙ্গে গায়ের জোরে পেরে উঠছিলাম না।’

‘আমি মুখ ও চোখ বন্ধ করে ফেলি ভয়ে। কিন্তু সেই ক্রিকেটার আমার গাল ব্যবহার করে। এমন সময় হোটেলের কর্মচারী রুমের বারের জন্য কিছু জিনিস নিয়ে এসে দরজায় নক করে। ক্রিকেটার দরজা খুলতে যায়। আমি দ্রুত স্নানঘরে গিয়ে মুখ ধুয়ে নেই। এবং হোটেল কর্মচারী বের হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বেরিয়ে যাই।’

‘আমি ভয়ংকর অপমানিত বোধ করছিলাম। আমি জানি মানুষ বলবে, আমি জেনে বুঝেই গিয়েছি। সে বিখ্যাত, তুমিই চেয়েছিলে এমন কিছু করতে। কিংবা বলবে তোমার সঙ্গে এর চেয়েও ভয়ংকর কিছু হওয়া উচিত ছিল।’

গতকাল রানাতুঙ্গার পর আজ মালিঙ্গার বিরুদ্ধে উঠেছে যৌন হয়রানির অভিযোগ। শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড কিংবা অন্যান্য কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নেবে কি না এ ব্যাপারে অবশ্য কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

Content TOP

Related posts

Leave a Reply

body banner camera