(এটিএন বাংলার ) মাহফুজ ভাইয়ের সঙ্গে ডুয়েট অ্যালবাম করবো : নারী উদ্যোক্তা হেলেনা জাহাঙ্গীর

(এটিএন বাংলার ) মাহফুজ ভাইয়ের সঙ্গে ডুয়েট অ্যালবাম করবো : নারী উদ্যোক্তা হেলেনা জাহাঙ্গীর
Content TOP

হেলেনা জাহাঙ্গীর। নারী উদ্যোক্তা, সমাজসেবক, সংগঠক, টেলিভিশন ব্যাক্তিত্ব, উপস্থাপক হিসেবে পরিচিত। প্রযোজক ও পরিচালক হিসেবেও তাঁর নাম উঠে আসছে। এই বহগুণে গুণান্বিত মানুষটি পা রেখেছেন গানের জগতে।

সম্প্রতি তার গাওয়া প্রচুর গান পাওয়া যাচ্ছে ইউটিউবে। গানের জন্য যেমন প্রশংসা পাচ্ছেন তেমনি সমালোচনার মুখোমুখিও কম হতে হচ্ছে না তাকে। তবে সেসব সমালোচনাকে কমই তোয়াক্কা করেন হেলেনা জাহাঙ্গীর।

তাঁর ভাষ্য, কাজ করলে সমালোচনা হবেই। সমালোচনাটা এক ধরনের স্বীকৃতি।

হেলেনা জাহাঙ্গীর গান গাইতেন ছোট বেলা থেকেই। পারিবারিক ভাবেই গান শেখার সুযোগ হয়েছিল তাঁর। স্কুল, কলেজের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে `হেলেনা` ছিলেন পরিচিত মুখ। কিন্তু বিয়ের পর ব্যস্ত হয়ে পড়েন স্বামী, সংসার ও সন্তান নিয়ে। পাশাপাশি ছিল পড়ালেখার চাপও। ফলে ইচ্ছা করলেও গান গাওয়ার সময় করে উঠতে পারতেন না।

হেলেনা জাহাঙ্গীরের ভাষায়, আমার খুব অল্প বয়সে বিয়ে হয়ে গিয়েছিল। বিয়ের পর যখন কলেজে ভর্তি হই তখন আমার স্বামী আমাকে একটি হারমোনিয়াম কিনে দিয়েছিলেন। কিন্তু পড়াশুনা, সংসার, ব্যবসা সব মিলিয়ে গানে মনোযোগ দেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে আগুন যেমন ছাইচাপা দিয়ে রাখা যায় না তেমনি প্রতিভাকেও লুকিয়ে রাখা সম্ভব না।

সংগীত জগতে হেলেনা জাহাঙ্গীরের পদচারণা নিয়ে সঙ্গীতাঙ্গনে বেশ আলোচনা হচ্ছে। এ নিয়ে যেমন প্রশংসা আছে তেমনি রয়েছে সমালোচনাও। এ বিষয়ে একুশে টেলিভিশন অনলাইনের সাথে আলাপকালে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, আমি মিউজিক ভিডিও করার পর বেশ সাড়া পাচ্ছি। অনেকে সমালোচনা করছে এটা যেমন সত্য তেমনি অনেক শুভাকাংখী উৎসাহ দিচ্ছেন।

হেলেনা জাহাঙ্গীর জানালেন, গানে তাকে সব সময় উৎসাহ দেন তার স্বামী। বিয়ের পর থেকে আজ পর্যন্ত এ মানুষটির অনুপ্রেরণা সব সময় তাকে এগিয়ে নিয়ে গেছে। সন্তানদের উৎসাহ তো আছেই।

হেলেনা জাহাঙ্গীর- এর কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল তাঁর পছন্দের শিল্পী সম্পর্কে। প্রশ্ন শেষ হওয়ার আগেই তার উত্তর, ড. মাহফুজুর রহমান (এটিএন বাংলার মালিক)। এতো ব্যস্ততার মাঝেও তিনি (মাহফুজুর রহমান) গানকে সময় দেন। গানের প্রতি তার এক ধরণের আবেগ কাজ করে। এটা আমাকে মুগ্ধ করে। মূলত গান নিয়ে তার যে ভাবনা তা দেখেই আমি সিদ্ধান্ত নিই, আমিও গান করবো। বলতে পারেন, মাহফুজুর রহমানকে দেখেই আমি মিউজিক ভিডিও নিয়ে আসি।

‘আমার স্বপ্ন আছে, মাহফুজুর ভাইয়ের সঙ্গে একটি ডুয়েট অ্যালবাম করবো’-যোগ করেন হেলেনা।

যে মাহফুজুর রহমানকে নিয়ে হেলেনা জাহাঙ্গীর অনুপ্রাণিত হচ্ছেন, সেই মাহফুজুর রহমানকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে সমালোচনা। সম্প্রতি একটি ঘরোয়া অনুষ্ঠানে ইভা রহমানের সঙ্গে গাওয়া একটি গানের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে ভাইরাল হয়। তাতেও শুরু হয় ব্যাপক সমালোচনা।

তাঁর ক্ষেত্রে এমনটি হবে কি-না জানতে চাইলে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, সমালোচনাটা আমি এনজয় করি। মানুষ আমাদের সমালোচনা করছে এটাই স্বীকৃতি। কাজ করতে গেলেই সমালোচনা হবেই। ওসব পাত্তা দিলে চলবে না।

হেলেনা জাহাঙ্গীর- এর কাছে জানতে চেয়েছিলাম, এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমানকে নিয়ে তার মূল্যায়ন কী? উত্তরে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, মাহফুজ ভাই ভীষণ ভালো মনের একজন মানুষ। পরিশ্রম করে বড় হয়েছেন। সব সময় সৃজনশীল চিন্তা করেন। কখনো কারো ক্ষতি চান না। এমন মানুষ সমাজে সহজে পাওয়া যায় না। আমি মাহফুজ ভাইকে ধ্যানেজ্ঞানে সাপোর্ট করি।

হেলেনা জাহাঙ্গীর আরও বলেন, অনেকে ওনার গান নিয়ে সমালোচনা করে। আমি মনে করি তাতে মাহফুজ ভাইয়ের কিছু যায় আসে না। তিনি টাকার বিনিময়ে গান গান না। ভালোবেসে গান গেয়ে থাকেন। কে কী বলল, সেটা পাত্তা দেওয়ার কিছু নাই।

সাধারণত কোন ধরনের গান গাইতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন জানতে চাইলে হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, আমি এখনও কোনো মৌলিক গান গাইনি। তবে খুব শিগগিরই মৌলিক গান নিয়ে আসব। বেশ কিছু মৌলিক গান হাতে আছে। তবে সময়ের অভাবে সেগুলো গাওয়া হচ্ছে না। কম বেশি সব ধরণের গানই ভাল লাগে। যখন রবীন্দ্র সঙ্গীত শুনি সেটা ভালো লাগে। যখন নজরুল শুনি তখন নজরুল ভালো লাগে। সুফি গানেও আমার দুর্বলতা আছে।

News Source by : ETV online.

Content TOP

Related posts

Leave a Reply

body banner camera