brandbazaar globaire air conditioner

আশুলিয়ায় পোশাক শ্রমিককে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ

আশুলিয়ায় পোশাক শ্রমিককে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ
Content TOP

 

আশুলিয়ায় নারী পোশাক শ্রমিককে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করেছে বখাটেরা। এ ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী নারীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে গতরাতে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে পাঠানো হয়। এরআগে সোমবার দিবাগত রাতে আশুলিয়ার উত্তরগাজীরচট ভুইয়াপাড়া থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো-শেরপুর জেলার সদর থানার সাতমাড়িয়া গ্রামের মৃত মুরাদ হোসেনের ছেলে কাইয়ূম ও অপরজন পাবনা জেলার ঈশ্বরদী থানার মুসোরিয়া গ্রামের নুর মোহাম্মদের ছেলে তুহিন আলম। তারা বর্তমানে আশুলিয়ায় বসবাস করে।

এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার এসআই ফজিকুল ইসলাম জানান, গত রোববার রাত ১০টার ভুক্তভোগী নারী কারখানা থেকে বাড়ি ফেরার পথে উত্তর গাজাীরচট এলাকায় বখাটে কাইয়ূম ও তুহিন মুখে রুমাল দিয়ে ওই নারীকে তুলে নিয়ে যায়। পরে পাশ্ববর্তী পরিত্যক্ত ঘরে গণধর্ষণ করে। অভিযোগের ভিত্তিতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

ভুক্তভোগী নারীর বরাত দিয়ে আরও জানান, কয়েকদিন ধরে মোবাইল ফোনে এই নারীকে বিরক্ত করতো ও কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলো গ্রেপ্তার দুই বখাটে।

এদিকে আশুলিয়ার একই এলাকায় চাকরীর প্রলোভন দেখিয়ে এক তরুণী ধর্ষণের ঘটনায় সারফিন নামে এক প্রাইভেটকার চালককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী তরুণী গতরাতে বাদী হয়ে সারফিন ও সহযোগি তহিরুল ভুইয়া নামে দুইজনের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

আসামিরা হলেন- বি-বাড়িয়া জেলার কসবা থানার গানপুর গ্রামের আলী হোসেনর ছেলে সারফিন। অপরজন উত্তরগাজীরচট এলাকায় মৃত তোফাজ্জল ভুইয়ার ছেলে তহিরুল ভুইয়া।

Content TOP

Related posts

body banner camera