ব্রেকিং নিউজঃ

১৯ মার্চ সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশ করবে বিএনপি

১৯ মার্চ সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশ করবে বিএনপি
bodybanner 00

আগামী ১৯ মার্চ সোমবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করবে বিএনপি। ১২ মার্চ সমাবেশ করার অনুমিত না পেয়েও বিএনপি ১৯ মার্চ শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করবে বলে দাবি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের।

 

তিনি বলেন, এর জন্য প্রশাসনের সকল শর্ত পালন করা হবে। রাজধানীর নয়াপল্টনে সোমবার দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপি মহাসচিব।

 

এ সময় মির্জা ফখরুল বলেন, অনেকেই মনে করে এটা আমাদের দুর্বলতা, আমি বলি এটা আমাদের দেশের প্রতি ভালোবাসা। আমরা চাই সংঘাত সংঘর্ষ এড়িয়ে চলতে। অনেক আগে থেকে আবেদন করে রাখলেও সরকার আমাদেরকে আজ জনসভার অনুমতি দেয়নি। তাই আগামী ১৯ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেই আমাদের জনসভা হবে।

 

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আগামী ১৫ মার্চ চট্রগ্রামে, ৩১ মার্চ রাজশাহীতে ও ২৪ মার্চ বরিশালে জনসভা করা হবে। ঢাকা শহরে সভা করার কোনো জায়গা নেই। খুব পরিকল্পিতভাবে রাজনৈতিক সভা করার স্থানগুলোকে সংকুচিত করতে বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে। আগে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউতে ছিল একটি বিশাল সড়ক, যে সড়কে আমরা জনসভা করেছি। কিন্তু ১৯৯৬ সালে যখন আওয়ামী লীগ সরকার আসে, তখন সেটি মাঝখানে ডিভাইভার দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে। ঐতিহাসিক পল্টন ময়দান যেখানে স্বাধীনতার পূর্বে বড় বড় জনসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেটাও কিন্তু বন্ধ করে দেয়া হয়েছে এবং ছোট্ট একটা জায়গা নিয়ে ছিল মুক্তাঙ্গান সেটাও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। আর সেখানে এখন পার্কিং এর জায়গা করা হয়েছে।

 

তিনি বলেন, আমাদের নেত্রীকে যে বেআইনিভাবে, সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে মিথ্যা মামলা উপর ভিত্তি করে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে তার প্রতিবাদে গণতান্ত্রিকভাবে প্রতিবাদ করার যে পথ জনসভা করা, সেই জনসভা আমরা আরো শান্তিপূর্ণভাবে করতে পারবো। কিন্তু এই সরকার মানুষকে এতো ভয় পায়, যে জনসভার মাধ্যমে প্রতিবাদ করার অধিকার সে অধিকারগুলোকে তারা বন্ধ করে দিয়েছে।

 

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন- স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, ড. আব্দুল মঈন খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, আহমেদ আজম খান, আতাউর রহমান ঢালী, রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, খাইরুল কবির খোকন প্রমুখ।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00