ব্রেকিং নিউজঃ

স্লো হয় না যে স্মার্টফোনগুলো

bodybanner 00

ব্যাটারি পুরনো হয়ে গেলে সফটওয়ারের মাধ্যমে আইফোন স্লো করে দেয়ায় সমালোচিত হচ্ছে অ্যাপল। এজন্য তারা আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চেয়ে ব্যাটারির দামও কমিয়েছে। কিন্তু, ক্রেতাদেরকে না জানিয়ে সফটওয়ার আপডেটের মাধ্যমে ফোনের কর্মক্ষমতা কমিয়ে দেয়ায় এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ১২টি মামলা করা হয়েছে অ্যাপলের বিরুদ্ধে।

এর ঠিক পর পর বিভিন্ন ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, ব্যাটারি পুরনো হয়ে গেলে তারা তাদের ফোনে এমনটি করেন না। রোববার স্যামসাংএলজি ফোন অ্যারেনা সাইটকে পাঠানো মেইলে জানিয়েছে, পুরনো ব্যাটারির কারণে তারা অ্যাপলের মত ফোনের পারফর্মেন্স স্লো করে দেন না।

স্লো হয় না যে স্মার্টফোনগুলো

এল জি বলেছে, ‘আমরা কখনো এমন করিনি, করবো না! আমরা ক্রেতাদের কথা চিন্তা করি।’

অন্যদিকে স্যামসাং জানিয়েছে, ‘ফোন পুরনো হয়ে গেলে সফটওয়ার আপডেট দিয়ে আমরা সিপিউর কর্মক্ষমতা কমিয়ে দেই না।’

ঠিক একদিন আগে এইচটিসি ও মটোরোলা দ্য ভার্জ সাইট জানিয়েছিল, তারা পুরনো ব্যাটারির কারণে তাদের ফোনের পারফর্মেন্স স্লো করে দেয় না। ব্যাটারি পুরনো হয়ে গেলে আইফোনে বিভিন্ন কাজ করতে সমস্যা হতে পারে। এমনকি ফোনটি হঠাৎ বন্ধও হয়ে যেতে পারে। এই সমস্যাটি যেন না হয় সেজন্য অ্যাপল আইফোন অপারেটিং সফটওয়ারের আইওএস ১০.২.১ সংস্করণে কিছু পরিবর্তন করা হয়।

নতুন অপারেটিং সিস্টেম ব্যাটারির চার্জ আরও ভালোভাবে বিভিন্ন কাজে বণ্টন করে। এর ফলে ফোনগুলো হঠাৎ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরিবর্তে ধীর গতিতে কাজ করে। আইফোনের ব্যাটারি বদলে নিয়ে খুব সহজেই এই সমস্যাটির সমাধান করা যায়। কিন্তু, অ্যাপল এ বিষয়ে কোনো বক্তব্য না দিয়ে তাদের অপারেটিং সিস্টেমে পরিবর্তন ঘটিয়েছে।

Brand Bazaar

অন্যান্য ফোন নির্মাতা কোম্পানির বিবৃতিগুলো থেকে একটি বিষয়ই স্পষ্ট হচ্ছে- ব্যাটারি পুরনো হয়ে গেলে ফোন স্লো করে দেয়া স্বাভাবিক কোনো পদ্ধতি নয়। অ্যাপল বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি করে ফেলেছে।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00