স্পর্শকাতর স্থান ধরে নারী আন্দোলনকারীকে গ্রেফতারের ছবি ভাইরাল

স্পর্শকাতর স্থান ধরে নারী আন্দোলনকারীকে গ্রেফতারের ছবি ভাইরাল
bodybanner 00

সরকারি চাকুরির বয়স ৩৫ করার দাবিতে শনিবার শাহবাগে সাধারণ ছাত্র পরিষদের মানবন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করে। এ সময় এক নারী আন্দোলনকারীর স্পর্শকাতর স্থান ধরে পুলিশ টেনে হিঁচড়ে গ্রেফতারের দৃশ্যে সমালোচনার ঝড় উঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ফলে আবারো আন্দোলনকারীদের প্রতি পুলিশের পেশাদারিত্বের প্রশ্নটি সামনে চলে এসেছে।

অনেকেরই প্রশ্ন, আন্দোলন থেকে পুলিশি গ্রেপ্তার হওয়া অস্বাভাবিক কিছু না, কিন্তু একজন পুরুষ পুলিশ সদস্য একজন নারী আন্দোলনকারীর স্পর্শকাতর স্থানে ধরে জনসম্পুখে টেনে হিঁচড়ে আটক করতে পারেন না। নারীদের আটক করতে নারী পুলিশ সদস্যরা কোথায় ছিল?

সকাল সাড়ে ১০টার পর আন্দোলনরতরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে যাত্রা শুরু করে। পথে পথে কয়েক বার পুলিশি বাঁধা উপেক্ষা করেও আন্দোলনকারীরা সামনে যেতে থাকে। বাংলামোটর পর্যন্ত পৌঁছালে হঠাৎ মারমুখি পুলিশের লাঠিপেটায় ছত্রভঙ্গ হয়ে যায় আন্দোলনকারীরা। গ্রেফতার হন ২৫জন। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ঐ  নারী আন্দোলনকারীকে আটকের ছবি ভাইরাল হয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

ছবিতে দেখা যায় চাকুরির বয়স ৩৫ করার দাবিতে ঐ নারী আন্দোলকারী বোরকা ও হিজাব পরে আন্দোলনে অংশ নেন। মানবন্ধনে অংশগ্রহনের পূর্বে জাতীয় জাদুঘরের সামনে বন্ধুদের সাথে হিজাব পরা অবস্থায় গ্রুপ ছবি তোলেন সেই নারী। তবে বাংলামোটরে মিছিলের মধ্য থেকে পুলিশ তার বুকে হাত দিয়ে হিজাব ও বোরকা টেনে জোর করে গ্রেফতার করার চেষ্টা করছে। নারীটি প্রাণপণ চেষ্টা করছে পুলিশের হাত থেকে নিজেকে ছাড়িয়ে নিতে। এ সময় তাকে পুলিশের হাত থেকে ছাড়িয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন তার সহপাঠিরা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারাও ব্যর্থ হয়েছে।

পুলিশের এমন অদ্ভুত আচরণে ক্ষুদ্ধ আন্দোলনে অংশগ্রহণকারীরা। তারা বিডিমর্নিং এর সাথে আলাপকালে এর তীব্র নিন্দা ও ঐ পুলিশ সদস্যের বিচার দাবি করেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা গেছে, চাকরিতে ঢোকার বয়স ৩৫ করার দাবিতে একদল আন্দোলনকারী সকাল সাড়ে দশটা থেকে শাহবাগ জাদুঘরের সামনে অবস্থান নিতে শুরু করে। বেলা ১১টার দিকে দুই শতাধিক আন্দোলনকারী সেখানে অবস্থান নেন। প্রায় এক ঘণ্টা তাঁরা সেখানে থেকে ওই দাবিতে স্লোগান দেন।

একপর্যায়ে তাঁরা সেখান থেকে বাংলামোটরের দিকে মিছিল নিয়ে যেতে চাইলে পুলিশ বাধা দেয়। তাঁরা বাধা উপেক্ষা করতে গেলে পুলিশ তাতে লাঠিপেটা করে। এ সময় পুলিশের পিটুনি ঠেকাতে নারী আন্দোলনকারীরা সামনে এলে পুলিশ তাঁদেরও পিটুনি দেয়। এ সময় পুলিশ কয়েকজনকে ধরে নিয়ে যায়। কয়েকজন আন্দোলনকারী বলেন, তাঁদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে পুলিশ হামলা চালিয়ে অন্তত ২৫ জনকে ধরে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে শাহবাগ থানার পুলিশ প্রথম আলোকে বলেছে, এ ঘটনায় কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00