ব্রেকিং নিউজঃ

স্টিম বাথ কেন নেব?

স্টিম বাথ কেন নেব?
bodybanner 00

আধুনিক জীবনে আমরা অনেক বেশি গতিশীল হয়ে পড়েছি। একদম দম ফেলার সময় নেই, বিশ্রামের সময় নেই। কাজের চাপে নাভিশ্বাস উঠে যাচ্ছে, দুশ্চিন্তা আর মানসিক চাপে জীবন এক ঘেয়েমি হয়ে যাচ্ছে। শারীরিক আর মানসিক অসুস্থতা আজকাল চেপে বসছেও বেশি, ঘুম হচ্ছে না ঠিকমতো। আর তাই না পেরে চিকিৎসকের কাছে ছুটছি, ওষুধ খাচ্ছি, খাদ্যাভাস আর রুটিন বদলে ফেলছি। কিন্তু চাইলেই শারীরিক মানসিক অসুস্থতা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব নিজে থেকে। সেজন্য দরকার নিজের একটু চেষ্টা আর সঠিক কিছু কর্মপন্থা।

স্টিম বাথ কেন নেব?

এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে শরীর আর মনকে চনমনে করে তুলতে ‘স্টিম বাথ’ বেশ উপযোগী বলে গবেষণায় জানা গেছে। অনেকেই জানেন না হয়তো যে স্টিম বাথ আসলে কী। একটা বদ্ধ ঘরে কৃত্রিম বাষ্প থেকে গরম ধোঁয়া তৈরি করে স্টিম বাথের আয়োজন করা হয়। আসুন জেনে নেই স্টিম বাথের কিছু উপকারিতা:

রক্তচাপ কমায়

গবেষণায় দেখা গিয়েছে ৩০ মিনিটের স্টিম বাথেই নেমে যাবে রক্তচাপ । যেমন কারও রক্তচাপ যদি ১৩৭ থাকে তাহলে একবার স্টিম বাথ নিলেই রক্তচাপ নেমে যাবে ১৩০-এ। আবার স্টিম বাথ নেওয়ার আগে রক্তচাপের মাত্রা ৮২ থাকলে বাথের পর তা নেমে ৭৫ হয়ে যাবে।

রোগ প্রতিরোধ

শুধু রক্তচাপ নয়, অন্যান্য অসুস্থতার মাত্রাও কমে যাবে অনেক। পরিবার বা অফিসের চাপ আর দুশ্চিন্তা মস্তিস্ক হৃদপিণ্ড দুটোকেই অস্থির করে তোলে। স্টিম বাথ অন্যান্য জটিল রোগও প্রতিরোধ করতে পারে।

রক্ত চলাচলে সহায়তা করে

রক্তে চিনির পরিমাণ কমাতে পারলে কমে হৃদরোগের সম্ভাবনা, শরীরে রক্ত চলাচল সম্পর্কিত সমস্যাগুলো নিয়ন্ত্রণে আসে। নিয়মিত স্টিম বাথের ফলে রক্তচাপ এবং উচ্চ রক্তচাপজনিত এই সমস্যাগুলোকে কাটিয়ে ফেলা যায়। স্টিম বাথের সময় অয়েল ম্যাসাজের ফলে পুরো শরীরে রক্ত চলাচল খুব ভালো হয়।

শ্বাসকষ্ট কমায়

শুধু রক্তচাপ জনিত সমস্যাই নয়, স্টিম বাথে কমবে শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যাও। শ্বাসনালীর অভ্যন্তরে বাতাস চলাচলের জন্য স্টিম বাথের কোনো বিকল্প নেই।

ওজন কমায়

স্টিম নিলে শরীরের ভেতরকার চর্বি গলতে শুরু করে৷ এ জন্য ওজন কমাতেও স্টিম বাথ বেশ কার্যকর৷

হাড়ের শক্তি কার্যকর

কাজ করতে করতে পায়ের পাতা ঝিমঝিম করে উঠতে পারে, এছাড়া দেখা দিতে পারে মেরুদণ্ডের ব্যথা৷ আবার বাইরের ধুলো বালি আর রোদে মাইগ্রেনের ব্যথা হলে স্টিম বাথ দারুণ কার্যকর ভূমিকা রাখে।

চাইলে ঘরে বসেই করা যায় স্টিম বাথ। তবে যদি খাটনি মনে হয় তাহলে রয়েছে বিউটি পার্লার, স্পা সেন্টার। চাইলে সেখানেই স্টিম বাথের সুবিধা নিয়ে আসতে পারবেন আপনারা।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00