ব্রেকিং নিউজঃ

পিতাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে ছেলে, ছেলে ও ছেলের বৌ পলাতক

পিতাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে ছেলে, ছেলে ও ছেলের বৌ পলাতক
bodybanner 00

নাহিদ হোসেন নাটোর প্রতিনিধি :

 পারিবারিক বিরোধের জের ধরে নাটোরের গুরুদাসপুরে পিতা শামসুল আহমেদকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে ছেলে রুবেল হোসেন (২৫)। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। তবে ঘটনার পর থেকে ছেলে রুবেল হোসেন ও ছেলের বৌ পলাতক রয়েছে। আজ শনিবার দুপুরে উপজেলার খামার নাচকৈড় মহল্লায় এই ঘটনা ঘটে। গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সেলিম রেজা ও এলাকাবাসী জানান, শামসুল আহমেদ পেশায় একজন দর্জি ছিলেন এবং তার ছেলে ও ছেলের বৌকে নিয়ে খামার নাচকৈড় মহল্লায় বসবাস করতেন। বাবাকে বাড়ীতে থাকতে দিতে না চাওয়ায় ছেলে রুবেলের সাথে বাবা শামসুলের পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিল দীর্ঘদিন ধরেই। এনিয়ে প্রায় বাড়ীতে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো তাদের। আজ দুপুরে শামসুল আহমেদ বাজার থেকে বাড়ীতে ফিরলে ছেলে রুবেলের সাথে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এরই এক পর্যায়ে ছেলে রুবেল ক্ষিপ্ত হয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে বাবাকে কুপিয়ে জখম করে। পরে ছেলে ও ছেলের বৌ আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় প্রতিবেশীরা ঘটনাটি দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। এদিকে শামসুল আহমেদকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রেফার্ড করে। পরে ছেলে ও ছেলের বৌ তাকে নিয়ে বাড়ীতে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হলে মৃতদেহ রেখে তারা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। প্রাথমিক সুরৎহাল প্রতিবেদনে নিহতের মাথায় ও শরীরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক ছেলে ও ছেলের বৌকে আটকের জন্য অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00