মাদারীপুরে এসআই’র বিরুদ্ধে ঘুষ-বাণিজ্যের অভিযোগ

মাদারীপুরে এসআই’র বিরুদ্ধে ঘুষ-বাণিজ্যের অভিযোগ
bodybanner 00

মোঃ ইব্রাহীম মাদারীপুর প্রতিনিধি::

মাদারীপুরের ডাসার থানার এসআই মিঠুন ও ইমরানের বিরুদ্ধে ঘুষ নিয়ে আসামি ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সংশ্লিষ্ঠ একাধিক সূত্রে জানা গেছে, ডাসার থানার এসআই মিঠুন কুমার মন্ডল ও এএসআই ইমরান শনিবার রাতে উত্তর ডাসারের বড়বাড়ি এলাকা থেকে নুরুল ইসলাম মাতুব্বরের ছেলে চয়ন ইসলাম ডালিম ও নবগ্রাম এলাকার রমনী সরকারের ছেলে দেবাশীষ সরকারকে মাদকসহ আকট করে। রাতভর থানা হাজতে আটক রেখে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখায়। পরে পরিবারের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা আদায় করে রবিবার সকালে ছেড়ে দেয়। এছাড়াও সুকদেব নামে এক যুবককে আটক করে টাকা না পেয়ে কোর্টে পাঠায়। এই আটক নিয়ে ডাসার থানার এসআই এবং ওসি পরস্পর বিরোধী বক্তব্য দিলেও পরে এসআই ফোন করে তার বক্তব্য অস্বীকার করেন। প্রথমে এসআই মিঠুন কুমার মন্ডলকে আটকের বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, যাদের আটক করা হয়েছে তাদের কোর্টে পাঠানো হয়েছে। এরপরে ডাসার থানার ওসি এমদাদুল হক বলেন, একজনকে আটক করা হয়েছে। তাকে কোর্টে চালান দেওয়া হয়েছে। এরপর এই প্রতিবেদক আরো দুই আসামি ডালিম ও দেবাশীষের বিষয় জানতে চাইলে ওসি বলেন, আমার জানা মতে একজনই আটক হয়েছে। পরে কেউ আটক হয়েছে কি না আমার জানা নেই। এর কিছুক্ষণ পরেই এসআই মিঠুন তার বক্তব্য অস্বীকার করে বলেন, একজন আটক করা হয়েছে। তাকেই শুধু কোর্টে চালান দেওয়া হয়েছে। টাকা আদায়ের বিষয় এবং ডালিম ও দেবাশীষকে আটকের বিষয় অস্বীকার করেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি বলেন, দেবাশীষ ও ডালিমকে আটক করে থানা হাজতে রাতভর রাখা হয়। বিষয়টি থানার সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পরীক্ষা করলেও সত্যতা পাওয়া যাবে। মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উত্তম প্রসাদ পাঠক বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। বিষয়টি খতিয়ে দেখব। মাদক সংশ্লিষ্ঠ বিষয় যদি কারো অবহেলা প্রমাণ হয় তাহলে কঠোর বিচার হবে। ​

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00