ব্রাজিল বা আর্জেন্টিনা নয়, মরিনহোর বাজি ইংল্যান্ড

ব্রাজিল বা আর্জেন্টিনা নয়, মরিনহোর বাজি ইংল্যান্ড
bodybanner 00

এবারের ফুটবল বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড ভালো করবে বলে মনে করেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোচ পর্তুগালের হোসে মরিনহো। নিজ দেশ পর্তুগালকে নিয়ে আশাবাদী নন তিনি।

ব্রিটিশ প্রচারমাধ্যমের কাছে বিশ্বকাপ ফুটবল নিয়ে নিজের ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন মরিনহো। তিনি বলেন, ইংল্যান্ড এবারের আসরে ভালো করবে। অনেক দূর যাবে তারা। তবে পর্তুগাল-ব্রাজিল বা আর্জেন্টিনা বড় সাফল্য পাবে না।

Sony Rangs

১৯৬৩ সালে পর্তুগালে জন্ম নেন মরিনহো। তবে দেশের হয়ে কোনো ম্যাচ খেলতে পারেননি। দেশের ঘরোয়া ফুটবলের চারটি ক্লাবের হয়ে আশি দশকে ৯৪টি ম্যাচ খেলেছেন মিডফিল্ডার মরিনহো। খেলোয়াড় হিসেবে সুনাম না কুড়ালেও ম্যানেজার হিসেবে বিশ্ব ফুটবলের মঞ্চে সুনামের কমতি নেই তার।

২০০০ সালে বেনফিকা দিয়ে কোচিং ক্যারিয়ার শুরু করেন মরিনহো। এরপর ছয়টি ক্লাবে কোচের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। প্রায় সব দলকেই সেরা সাফল্যর স্বাদ দিয়েছেন ৫৫ বছর বয়সী মরিনহো। যেসব দলের দায়িত্বে তিনি ছিলেন তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো পর্তুগীজ ক্লাব ডেসপোর্তিভা ডি লেইরিয়া, পোর্তো, চেলসি, ইন্টারমিলান, রিয়াল মাদ্রিদ ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

বর্তমানে ম্যান ইউ’র কোচের ধারণা গ্রুপ পর্বের বাঁধা সহজেই পেরিয়ে যাবে ইংল্যান্ড। সেখানে ইংলিশরাই সেরা হবে বলে মনে করেন তিনি, গ্রুপে ইংল্যান্ডের কোনো বড় বাঁধা নেই। বেলজিয়াম ভালো দল। তবে বেলজিয়ামকে হারাতে কোনো সমস্যা হবে না ইংলিশদের। তাই গ্রুপের সেরা হিসেবেই পরের রাউন্ডে খেলবে ইংল্যান্ড।

পর্তুগালের নাগরিক হলেও, যে দেশে বর্তমানে কোচিং করাচ্ছেন সেই ইংল্যান্ড এ বারের বিশ্বকাপে ভাল করবে বলেও ঘোষণা দিয়ে রাখলেন মরিনহো।

ব্রিটিশ প্রচারমাধ্যমের কাছে আসন্ন বিশ্বকাপ নিয়ে নিজের ভবিষ্যদ্বাণী করতে গিয়ে তিনি বলেন, আমি আবেগপ্রবণ হয়ে পড়তে চাই না। কিন্তু হয়ে পড়েছি। আমি চাই আমার ফুটবলাররা জিতুক। আবার চাই কিছু ফুটবলারের তাড়াতাড়ি ছুটি হোক। তবে ইংল্যান্ডের এবার ভালো সম্ভাবনা দেখছি। ইংলিশদের অনেক ফুটবলারই এবার লিগে খুব ভালো পারফরমেন্স করেছে। আমার নজরে পড়েছে। বিশ্বকাপে ভালো করতে পারলে দলও সাফল্য পাবে বলে আমার বিশ্বাস।

ইংল্যান্ডের পর স্পেনকে নিজের পছন্দের তালিকায় রাখছেন মরিনহো। গ্রুপ পর্বে স্পেনের প্রধান প্রতিপক্ষ পর্তুগাল, মরিনহোর জন্মভূমি। তারপরও ‘বি’ গ্রুপে স্পেনই সবার উপরে থাকবে বলে বলেন তিনি, আমি পরে বুঝিয়ে দেব, যে আমি পুরোপুরি পর্তুগীজ। কিন্তু এখন বলতেই হচ্ছে, এই গ্রুপে দ্বিতীয় হবে পর্তুগাল। তবে পর্তুগাল খুব বেশি দূর যেতে পারবে না। এক্ষেত্রে স্পেনের এবার ভালো করার সম্ভাবনা রয়েছে।

ইংল্যান্ড ও স্পেনের সাথে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে সেরা হবার কাতারে রেখেছেন মরিনহো। তবে বিশ্ব ফুটবলের দুই জনপ্রিয় দল আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের কোনো সম্ভাবনা দেখছেন না নিজেকে এক নম্বর কোচ হিসেবে দাবি করা ৫৫ বছর বয়সী মরিনহো।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00