বিনা ঘোষণায় প্রতিযোগিতা শুরু

বিনা ঘোষণায় প্রতিযোগিতা শুরু
bodybanner 00

‘নিজের টাকা দিয়ে অনুষ্ঠান বানাচ্ছি, ঘোষণা দেওয়ার কী আছে? গত বছর ছিল প্রথমবারের মতো আয়োজন, তাই সংবাদ সম্মেলন করে ঘোষণা দিয়েছিলাম।’ বললেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার আয়োজক প্রতিষ্ঠান অন্তর শোবিজের চেয়ারম্যান স্বপন চৌধুরী। আজ শুক্রবার দুপুরে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার আয়োজন নিয়ে কথা হয় তাঁর সঙ্গে।

স্বপন চৌধুরী জানান, ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে ঢাকার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (বিএফডিসি) ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার বাছাই কার্যক্রম শুরু হবে। চলবে টানা কয়েক দিন। নাম নিবন্ধনের কোনো ঘোষণা না এলেও হঠাৎ শোনা গেল বাছাই কার্যক্রমের খবর। কীভাবে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হচ্ছে? স্বপন চৌধুরী দাবি করেন, এ বছর ফেব্রুয়ারিতে নাকি নাম নিবন্ধনের প্রক্রিয়া শুরু হয়। বিষয়টা একেবারে নিজেদের মতো করছে তাদের প্রতিষ্ঠান। সারা দেশ থেকে নাকি ৩০ হাজারের মতো প্রতিযোগী এবার ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় অনলাইনে নাম নিবন্ধন করেছেন। আজ রাতে তাঁদের মধ্য থেকে ১২০০ প্রতিযোগীকে বাছাই করা হবে। এই প্রতিযোগীরা আগামী কয়েক দিন বিচারকদের মুখোমুখি হবেন। গ্র্যান্ড ফিনালের জন্য কয়েক ধাপে সেরা ১০ জন প্রতিযোগীকে চূড়ান্ত করা হবে।

স্বপন চৌধুরী জানান, আগামী অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহে বিচারকদের রায়ে নির্বাচিত সেরা ১০ প্রতিযোগীকে নিয়ে গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠান আয়োজন করা হবে। সেদিন বিচারকদের রায়ে যিনি নির্বাচিত হবেন, তিনিই ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেন।

এদিকে গত ২৭ জুলাই প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার আয়োজক স্বপন চৌধুরী বলেছেন, ‘আগামী সপ্তাহে আসতে পারে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। নাম নিবন্ধন আগস্টে শুরু হলেও যাবতীয় কার্যক্রম শুরু হবে সেপ্টেম্বর থেকে।’

গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয় ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার প্রথম আসর। গ্র্যান্ড ফিনালের মঞ্চে সেদিন চ্যাম্পিয়ন হিসেবে নাম ঘোষণা করা হয় জান্নাতুল নাঈম এভ্রিলের। পরে চ্যাম্পিয়নকে নিয়ে বিচারকদের অনেকে আপত্তি জানান। একই সময়ে এভ্রিলের বিরুদ্ধে তথ্য গোপনের অভিযোগ ওঠে। এরপর আয়োজক আর বিচারকদের মধ্যে চ্যাম্পিয়ন এভ্রিলকে নিয়ে অনেক জল ঘোলা হয়। পরে বিচারকদের নিয়ে রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে নতুন চ্যাম্পিয়ন জেসিয়া ইসলামের নাম ঘোষণা করা হয়। সেই আয়োজনের পর অনেকেই ধারণা করেছে, এরপর বুঝি ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার আয়োজন আর হবে না। সব গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়ে আয়োজক প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান স্বপন চৌধুরী বলেন, ‘এত চিন্তার কিছু নেই। মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা তো অবশ্যই হবে। কার্যক্রমও শুরু হয়ে গেছে।’

স্বপন চৌধুরী বলেন, ‘আমাদের সঙ্গে বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতার আয়োজক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে। এবারের আয়োজন গত বছরের চেয়ে এক মাস পেছানো হয়েছে। আমরা তো এমনিতেও গত বছর এই সময় মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতার ঘোষণা দিয়েছিলাম। এবার তার চেয়ে কিছু দেরি হচ্ছে। তবে আমরা আয়োজনটা করছি, এটা নিশ্চিত।’

‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ জেসিয়া ইসলাম চীনের সানাইয়া শহরে বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতার ৬৭ তম আসরে অংশ নেন। বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করে তিনি শেষ পর্যন্ত সেরা চল্লিশে জায়গা করে নেন। এবার ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে যুক্তরাষ্ট্রে। গত বছর বিশ্ব সুন্দরীর মুকুট জয় করেন ভারতের মানুষি ছিল্লার। বিশ্বের ১০৮টি দেশের প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে ‘মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৭’ মুকুট পরেন তিনি।

এবারের আয়োজন নিয়ে স্বপন চৌধুরী বলেন, ‘গত বছর কিছু ভুল হয়েছে, এবার যেন আর সে ধরনের কিছু না ঘটে, সেদিকে আমাদের খেয়াল থাকবে। নতুনত্ব রাখার চেষ্টা করব।’

প্রতিযোগিতার বিচারক হিসেবে কারা থাকছেন? স্বপন চৌধুরী বলেন, ‘আমরা এরই মধ্যে শুভ্র দেব, তারিন, ইমি, সুজনসহ আরও কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলেছি। তাঁরা সেরা ১০ প্রতিযোগী বাছাইয়ের কাজ করবেন। গ্র্যান্ড ফিনালেতে বাছাইপর্বের বিচারকদের পাশাপাশি থাকবেন কয়েকজন অতিথি বিচারক।’ এরপর শুভ্র দেবের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমার সঙ্গে কয়েক দিন আগে আয়োজক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে বিচারক হওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। কিন্তু কবে থেকে শুরু হবে, সে বিষয়ে কিছুই জানি না। তা ছাড়া আমার সঙ্গে তাদের কোনো চুক্তি হয়নি।’

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00