ব্রেকিং নিউজঃ

বগুড়ার শেরপুরে রাস্তায় ধানের হাট যানযটের সৃষ্টি ॥ বিড়ম্বনায় জেএসসি পরীক্ষার্থীরা

বগুড়ার শেরপুরে রাস্তায় ধানের হাট যানযটের সৃষ্টি ॥ বিড়ম্বনায় জেএসসি পরীক্ষার্থীরা
bodybanner 00

শেরপুর(বগুড়া)প্রতিনিধি

সময় সকাল ৯ টা। জেএসসি পরীক্ষার্থীদের বহনকারী গাড়িটি ছুটছে পরীক্ষা কেন্দ্রের দিকে। বাড়ি থেকে বেরিয়েছে স্কুলগামী শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ। হঠাৎ বিরতি। তাদের মনের আশা ছিল তারা সময়মত তাদের গন্তব্যে পৌছাবে। কিন্তু হঠাৎ তাদের অনেক সময় ক্ষেপন হয়ে গেল বগুড়ার শেরপুর-ধুনট সড়কের মাদ্রাসাগেট এলাকায়। কারন সেখানে প্রতি সোমবার ও বৃহস্পতিবার রাস্তার উপরে ধানের হাট লাগে। আর এতেই বিড়ম্বনার স্বীকার হচ্ছে সবাই। শেরপুর পৌর এলাকার হাট পেরিফেরির জায়গায় ধানের হাট না বসিয়ে মাদ্রাসাগেট এলাকায় অপরিকল্পিতভাবে ধানের হাট বসায় রাস্তায় যানযটের সৃস্টি হয়েছে। এতে করে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী, চাকুরীজিবীসহ জন সাধারণেরা চরম ভোগান্তির স্বীকার হচ্ছে। ৫ নভেম্বর সোমবার সকাল সাড়ে ৯ টায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় এমন চিত্র। এ সময় ওই সড়কে চলাচলরত বাস, ট্রাক, সিএনজি, মোটর সাইকেল, অটোরিক্ধাসঢ়;্র, ভ্যানসহ বিভিন্ন ধরনের যানবহন আটকে যানযটের সৃস্টি হয়েছে। শেরউড ইন্টারন্যাশনাল (প্রা.) স্কুল এ্যান্ড কলেজ, সামিট ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এ্যান্ড কলেজ, প্রোগ্রেসিভ স্কুল, রাডার সাইন্স স্কুলসহ বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের বহন করা গাড়ি আটকে রয়েছে। যারা সময়মত স্কুলে যেতে পারছেনা এমনকি জেএসসি পরীক্ষার্থীরা সময়মত পরীক্ষার কক্ষে পৌছানো নিয়ে শংকায় ছিল। এছাড়াও বিভিন্ন অফিসের চাকরীজিবীরাও যানযট থাকার কারনে সময়সত অফিসে যেতে পারছেনা। এক স্কুল গাড়ির চালক বলেন, হাটের দিন আমাদের খুব সমস্যা হয়। হাট পেরিফেরির জায়গা না হলেও এখানে অপরিকল্পিতভাবে ধানের হাট বসায় আমরা সময়মত শিক্ষার্থীদের স্কুলে পৌছাতে পারিনা। পৌর কর্তৃপক্ষ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চাইলে এই সমস্যার সমাধান খুব দ্রুতই করতে পারবেন। আশা করি তারা এ সমস্যার সমাধান করবেন। এ ব্যাপারে শেরপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব আব্দুস সাত্তার বলেন, পৌরসভা ও প্রশাসন অনেক চেষ্টা করেছে হাট পেরিফেরির জায়গায় বসানোর। কিন্তু পাবলিক কথা শোনেনা। পরিবহন ব্যবস্থা সহজ হওয়ায় তারা ওখান থেকে সরছেনা।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00