পুলিশের হাতেই গণতন্ত্রের মৃত্যু পরোয়ানা : রিজভী

পুলিশের হাতেই গণতন্ত্রের মৃত্যু পরোয়ানা : রিজভী
bodybanner 00

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বর্তমান সরকার পুলিশের ওপর ভর করে ক্ষমতায় আছে। পুলিশকে যে পরিমাণে ক্ষমতা দেয়া হয়েছে তাতে মনে হচ্ছে পুলিশের হাতেই এখন গণতন্ত্রের মৃত্যু পরোয়ানা। শনিবার বিকেলে দলের নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন।
পুলিশের হাতেই গণতন্ত্রের মৃত্যু পরোয়ানা : রিজভীতিনি বলেন, বর্তমানে দেশের এমন এক অবস্থা যাতে মনে হচ্ছে কারো মৃত্যুর পর জানাজা, কুলখানি ও রুহের মাগফিরাত কামনা করতে গেলেও পুলিশের অনুমতি নেয়া লাগবে। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বিএনপির আজকের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে সরকার অশান্তির যে আগুন জালাল সেটা আপনারা প্রত্যক্ষ করেছেন। সরকারের চণ্ডনীতির কারণে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বেপরোয়া সন্ত্রাসীদের মতো আচরণ করছে। তারা হিতাহিত বিবেক বিবেচনাহীন হয়ে বিরোধী দলের ওপর হামলে পড়ছে। এরা অবৈধ ক্ষমতাসীনদের চাহিদা মেটাতে জনগণকে পরাধীনতার সুদৃঢ় বন্ধনে বন্দি করে রাখার দায়িত্ব নিয়েছে।

 

রিজভী বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে গত ২২ ফেব্রুয়ারি বিএনপি ঘোষিত আজকের শান্তিপূর্ণ কালো পতাকা প্রদর্শনের কর্মসূচির ওপর এক কদর্য হিংস্র আক্রমণ চালিয়েছে পুলিশ। পুলিশের গুণ্ডামিতে ক্ষতবিক্ষত করা হয়েছে বিএনপি নেতাকর্মীদের। ফুটপাথে শান্তিপূর্ণভাবে দাঁড়াতে গেলে পুলিশ আচমকা তাদের ওপর চড়াও হয়ে নেতাকর্মীদের পাইকারিহারে নির্দয়ভাবে পেটাতে পেটাতে পুলিশভ্যানে তুলতে শুরু করে। বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, তাদের আচরণে মনে হয়, বিএনপির নেতাকর্মীদের কেউ মারা গেলে তাদের জানাজা, দাফন ও আত্মার মাগফিরাতের জন্য মিলাদ করতে গেলেও পুলিশের অনুমতি লাগবে। পুলিশের হাতে এখন গণতন্ত্রের মৃত্যু পরোয়ানা। আবারো আমি বিএনপি নেতাকর্মীদের জীবনপ্রবাহ রুদ্ধ করে দেয়ার মতো পুলিশের আক্রমণের তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও ধিক্কার জানাচ্ছি।সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির সহদপ্তর সম্পাদক বেলাল আহমদ, তাইফুল ইসলাম টিপু, নির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00