ব্রেকিং নিউজঃ

নওগাঁয় জেলা প্রশাসনের স্বাস্থ্য ও পরিবেশ বিষয়ক সচেতনামূলক কর্মসূচী

নওগাঁয় জেলা প্রশাসনের স্বাস্থ্য ও পরিবেশ বিষয়ক  সচেতনামূলক কর্মসূচী
bodybanner 00

বিকাশ চন্দ্র প্রাং,স্টাফ রিপোর্টার, নওগাঁ:

সুস্বাস্থ্য ও সুন্দর পরিবেশের জন্য হাঁটা। শারীরিকভাবে সুস্থ থাকার জন্য প্রতিদিন হাঁটার কোনও বিকল্প নেই। সেই সাথে নিজেদের পরিবেশও পরিচ্ছন্ন রাখা প্রয়োজন। স্বাস্থ্য ও পরিবেশ বিষয়ক সচেতনামূলক এমনই একটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নিয়েছে নওগাঁ জেলা প্রশাসন। আর এ লক্ষে নিয়মিত হাঁটাকে উৎসাহিত ও আনন্দদায়ক করতে এবনিজেদের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখতে জনসাধারণকে উৎসাহিত করতে শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টায় শহরের মুক্তির মোড় থেকে এ কর্মসূচী শুরু হয়। তবে সকাল থেকেই শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে মুক্তির মোড়ে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ জাড়ো হতে থাকে। এছাড়া বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শহরজুড়ে মাইকিং করে প্রচারনা চালানো হয়। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকেও জেলা প্রশাসক তার আইডি থেকে এ কর্মসূচীর জন্য জনগনকে অংশ নিতে উৎসাহিত ও সচেতনামূলক একটি পোস্ট দিয়েছেন। সকাল সাড়ে ৬টায় শহরের মুক্তির মোড় হতে শুরু হয়ে কাজীর মোড় দিয়ে বিহারী কলোনী প্রায় দেড় কিলোমিটার পর্যন্ত পদযাত্রা ও পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া প্রতি শুক্রবার সকালে নওগাঁ পৌরসভার যে কোন ওয়ার্ডে সমবেত ভাবে হাঁটা এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান অনুষ্ঠিত হবে বলেও জানা যায়। এ অভিযানে উপস্থিত ছিলেন, নওগাঁ জেলা প্রশাসক মো: মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মাহবুবুর রহমান, স্থানীয় সরকার উপ-পরিচালক মুজিবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম মো: শাহনেওয়াজ, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুসতানজিদা পারভিন, পৌরসভা মেয়র নজমুল হক সনিসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারী। এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন এ পরিস্কার অভিযানে অংশগ্রহণ করেন। কর্মসূচীতে অংশ নিতে আসা প্রবাসি তসলিম উদ্দিন আহমেদ বলেন, পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা বিষয়ে আমাদের নিজেদের সচেতন হতে হবে। শহর পরিস্কার রাখতে নিজেদের ব্যবহৃত ময়লা-আর্বজনা নির্দিষ্ট স্থানে ফেলতে হবে। এটা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। কিন্তু সচেতনতার অভাবে সেটা পালন করি না। শহর পরিস্কার রাখতে পৌরসভার অপেক্ষায় না থেকে সবাই যদি নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করি তাহলে কিছুটা হলেও পরিস্কার রাখা সম্ভব। মোট কথা নিজেকে সচেতন হতে হবে। বাহিরের দেশের লোকজন ময়লা-আর্বজনা নির্দিষ্ট স্থানে রাখে। শহরের মাস্টারপাড়ার বাসিন্দা কামরুল হাসান প্রশাসনের এমন উদ্যোগে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, একার পক্ষে কোন কাজ করা কখনোই সম্ভব না। সবাই নিজ নিজ অবস্থান থেকে যদি এমন উদ্যোগ নেয়া হয় তাহলে সত্যিই শহর পরিস্কার রাখা সম্ভব হয়। আমাদের এসব বিষয়ে সচেতনতা বাড়াতে হবে। নওগাঁ জেলা প্রশাসক মো: মিজানুর রহমান বলেন, শহর পরিস্কার রাখতে পৌরসভার একার পক্ষে সম্ভব না। এমনকি সরকারে কোন প্রজেক্টেও সম্ভব না। পরিস্কার রাখতে
আমাদের সচেতন হতে হবে। নির্দিষ্ট স্থানে ময়লা-আর্বজনা ফেলতে হবে। এছাড়া প্রতি শুক্রবার আমরা এক সাথে হাঁটব। এতে করে কিছুটা হলেও আমরা সুস্থ থাকব।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00