নওগাঁর মহাদেবপুর সড়কের বেহাল দশা দুর্ভোগে লক্ষাধিক মানুষ

নওগাঁর মহাদেবপুর সড়কের বেহাল দশা দুর্ভোগে লক্ষাধিক মানুষ
bodybanner 00

স্টাফ রিপোর্টার, নওগাঁ:

নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলা সদরের মহাদেবপুর-নওগাঁ দু’লেন সড়কের ঘোষপাড়া মোড় থেকে মাসুদ ফিলিং স্টেশন পর্যন্ত চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়লেও এর সংস্কার হচ্ছে না। আর মানুষের দুর্ভোগও কমছে না। সড়কে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন। চলাচলে জনগণের সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এটি শহরবাসীর জন্য মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। প্রায়ই দুর্ঘটনায় পড়তে হচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও পথচারীদের। জনসাধারনের চলাচলের প্রধান সড়কটি দীর্ঘদিন যাবৎ মেরামত না করায় বাড়ছে জনমনে ক্ষোভ। এ সড়কে প্রতিদিন অসংখ্য বাস, ট্রাক, মাইক্রো, মটরসাইকেল, চার্জার ভ্যান ও রিকশাসহ বিভিন্ন যানবাহনে হাজার হাজার মানুষ চলাচল করে। স্কুল-কলেজগামী ছাত্র-ছাত্রীসহ ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে এ সড়ক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সড়কটিতে চলতে গিয়ে পথচারীদের যেমন সময়ের অপচয় হচ্ছে ঠিক তেমনি রয়েছে জীবনের ঝুঁকি। যে কোনো যানবাহনে চলাচলে যানবাহনের যেমন ক্ষতি তার চেয়ে বেশি ক্ষতিতে পড়ছেন যানবাহনের যাত্রীরা। কোমরসহ গোটা শরীর যানবাহনের ঝাঁকিতে ব্যথায় কাতর হতে হচ্ছে। যানবাহনেরও চরম ক্ষতি হচ্ছে। শহরের ড্রেনেজ ব্যবস্থা ভালো না থাকায় বৃষ্টির পানিতে সড়কে হাঁটু জল জমে যায়। চলাচল অনুপযোগী সড়কটি অনতিবিলম্বে মেরামত এখন সময়ের দাবিতে পরিণত হয়েছে। সাইদুর, এনামুল, ভুট্টুসহ কয়েকজন বাস চালক জানান, এই সড়কে এক প্রকার বাধ্য হয়ে গাড়ি চালাচ্ছেন তারা। চলাচল অনুপযোগী এই সড়কে গাড়ি চালানোর ফলে কয়েকদিন পরপর গাড়ির বিভিন্ন যন্ত্রাংশ পরিবর্তন করতে হচ্ছে। এ অবস্থায় গাড়ি চালানো খুব কঠিন হয়ে পড়েছে বলেও জানান তারা। উপজেলা সদরের বাসিন্দা সাইফুর
রহমান সনি, আমিনুর রহমান, সাইফুল ইসলাম, তারেক, সামিম ও ফারুক জানান, প্রতিনিয়ত ঝুঁকি নিয়ে তাঁরা এ সড়কে চলাচল করছেন। সড়কটি নষ্ট হলেও দ্রুত সরকারি ভাবে মেরামতের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছেনা, রাস্তাটিতে যেন কারোরই নজর পড়ছেনা। এ ব্যাপারে সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তর নওগাঁর নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ হামিদুল হক জানান,সড়কটি সংস্কারে দ্রুতপ্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।#

Facebook Comments

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00