দোহার নবাবগঞ্জের মানুষ এখন দখল ও চাঁদাবাজমুক্ত: সালমা ইসলাম

দোহার নবাবগঞ্জের মানুষ এখন দখল ও চাঁদাবাজমুক্ত: সালমা ইসলাম
bodybanner 00
 BRAND BAZAAR এ LED / 3D/ Smart / 4K TV 65% ডিস্কাউন্ট

দোহার নবাবগঞ্জের মানুষ এখন শান্তিতে বসবাস করছে। আগের মতো এখন আর সন্ত্রাস, দখল ও চাঁদাবাজি নেই। হত্যা ও খুনের রাজনীতি থেকে মানুষ রেহাই পেয়েছে। শুক্রবার বিকালে দোহারের বানাঘাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে জাতীয় পার্টিতে যোগদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি এ কথা বলেন।

দোহার নবাবগঞ্জের মানুষ এখন দখল ও চাঁদাবাজমুক্ত: সালমা ইসলাম

ডিএম ফয়সাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত যোগদান অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম বলেন, জনগণ এখন স্বস্তিতে কাজকর্ম করতে পারছে। কারণ আমার দলের কোনো বাহিনী নেই যারা দখল, সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজি করবে। আমি মানুষের শান্তির জন্য রাজনীতি করি। এলাকার উন্নয়নই আমার প্রধান লক্ষ্য। দলমত নির্বিশেষে আমি সে লক্ষ্যের দিকেই ধাবিত হচ্ছি। যাতে দোহার নবাবগঞ্জের সাধারণ মানুষ তাদের কাক্সিক্ষত উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত না হয়। সালমা ইসলাম আরও বলেন, আগামী দিনে সুষ্ঠু রাজনীতির ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে আমাকে নতুন নতুন পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যেতে হচ্ছে। আপনারাও সেই সঙ্গে আমার পাশে থাকবেন। তিনি বলেন, ইতিমধ্যে ২১৭ কোটি ৬২ লাখ টাকা ব্যয়ে দোহারে পদ্মার ভাঙনরোধ প্রকল্পের কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এতে ভাঙন কবলিত এলাকার জনসাধারণের মধ্যে স্বস্তি ফিরে এসেছে। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই জনগণ তার সুফল ভোগ করবে। এ সময় ফয়সাল হোসেনের নেতৃত্বে দোহারের বিভিন্ন দলের ২ শতাধিক নেতাকর্মী সালমা ইসলাম এমপির হাতে ফুল দিয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সুতারপাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নুর ইসলাম বেপারি, জাপা নেতা জুয়েল আহমেদ, জাহাঙ্গীর চোকদার, ডা. আলাউদ্দিন আল আজাদ, আবদুল আলীম, মশিউর রহমান, আসাদুজ্জামান চৌধুরী রানা, লোকমান হোসেন, রেশমী হোসেন আজাদ, আইরিন গমেজ, বাবুল হোসেন, ছাত্র সমাজের রাজীব খান, জুবায়ের আহমেদ, নজরুল ইসলাম, মনির হোসেন প্রমুখ।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00