দোহারে আওয়ামী লীগ নেতাকে গাছে বেঁধে পেটানোর অভিযোগ

দোহারে আওয়ামী লীগ নেতাকে গাছে বেঁধে পেটানোর অভিযোগ
bodybanner 00

দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক আব্দুর রশিদকে প্রতারণার দায়ে গাছে বেঁধে পিটিয়েছে ভুক্তভোগী একটি পরিবার। শুক্রবার উপজেলার কুসুমহাটী ইউনিয়নের সুন্দরীপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় গতকাল আব্দুর রশিদের পক্ষ থেকে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সুন্দরীপাড়া এলাকার মো. শহিদ মিয়ার স্ত্রী রাশেদা বেগমের সাথে সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট এন্ড রিহ্যাবিলিটেশন প্রাগ্রাম (এইচডিআরপি) এনজিও এর পরিচালক আব্দুর রশিদের সাথে প্রায় দশবছর ধরে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ৬ মাস আগে হঠাৎ করেই একদিন রাশেদা শহিদের ঘর ছেড়ে আব্দুর রশিদরে হাত ধরে পালিয়ে যায়। যা এলাকায় জানাজানি হয়। এর পর থেকে শহিদ ও তার পরিবারের আন্য সদস্যরা রাশেদাকে খুঁজতে থাকে।

Sony Rangs

এক পর্যায় জানতে পারে আব্দুর রশিদের হাত ধরে পালিয়েছে রাশেদা। এবং সে পার্শ্ববর্তী নবাবগঞ্জ উপজেলার কাশেমপুর এলাকায় ভাড়া থাকে। গত শুক্রবার সকালে আব্দুর রশিদ নবাবগঞ্জের কাশেমপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশ্য রওনা হয়। পথে মধ্যে মো. শহিদ তার লোকজনকে নিয়ে একটি অটোরিকশায় করে আব্দুর রশিদকে তুলে আনে শহিদের নিজ বাড়িতে। পরে তার জামা খুলে বাড়ির আমগাছের সঙ্গে বেঁধে লাঞ্ছিত করে। এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে আওয়ামী নেতা আব্দুর রশীদের দাবি করা স্ত্রী রাশেদা দোহার থানা পুলিশের কাছে ঘটনাটি বললে তাকে নিয়ে পুলিশ সুন্দরীপাড়া এলাকায় শহিদের বাড়ি থেকে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা অবস্থায় রশিদকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় শহিদ স্ত্রী রাশেদা সহ আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রশিদকে উদ্ধার করে। দোহার থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম শেখ বলেন বিষয়টি তেমন কিছু নয় তবে আমরা থানায় দু পক্ষকে ডেকে ফয়সালা করে দিব। আহত আব্দুর রশিদ উপজেলার উত্তর জয়পাড়া এলাকার বাসিন্দা।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00