দোহারে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে স্বর্নের চেইন ছিনতাই

দোহারে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে স্বর্নের চেইন ছিনতাই
bodybanner 00

দোহারে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে এক প্রবাসীর গলার স্বর্নের চেইন ছিনতাইয়ের অভিযোগ আমলে নিয়েছে দোহার থানা পুলিশ। পুলিশ সুত্রে জানা যায়,গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে দোহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.সিরাজুল ইসলাম প্রবাসী শ্যামল রাজের(২৭) কাছ থেকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে পোনে একভরি ওজনের স্বর্নের চেইন ছিনতাইয়ের অভিযোগ আমলে নিয়ে অপরাধীদের আটকের নির্দেশ দেন। অভিযোগকারী শ্যামল রাজ বলেন,গত ৪ ফেব্রয়ারি সন্ধ্যার দিকে উপজেলার ছোট বাস্তা গ্রামের আওয়ামীলীগ নেতা আনিছুর খানের ছেলে সন্ত্রাসী রনি খানের নেতৃত্বে ৭/৮ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল প্রবাসী শ্যামলকে রাস্তায় একা পেয়ে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে তার গলায় একটি পোনে একভরি ওজনের স্বর্নের চেইন লুটে নেয়।এ ঘটনার কয়েকদিন পর প্রবাসী শ্যামলের বাড়িতে গিয়ে পুর্বের ৭/৮ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল দুই লাখ টাকা না দিলে তার ছেলেকে গুম করে ফেলবে বলে হুমকি প্রদান করেন।এ ঘটনায় প্রথমে শ্যামলের পিতা লাল চান বিষয়টি কুসুমহাটি ইউপি চেয়ারম্যান মো.আমজাদ হোসেন আজাদকে জানালে তিনি স্ব-শরীরে থানায় উপস্থিত হয়ে দোহার থানার ওসিকে অবহিত করলে পুলিশ অভিযোগ আমলে নিয়ে আটকের নির্দেশ দেন। এ বিষয়ে কুসুমহাটি ইউপি চেয়ারম্যান মো.আমজাদ হোসেন আজাদ সমকালকে জানান,আওয়ামীলীগ নেতা আনিছ খানের ছেলে গত বুধবার সকালে উপজেলার ছোট বাস্তা গ্রামের এক কৃষকের জমি জোর করে দখল করে খেলার মাঠ বানানোকে কেন্দ্র করে জমির মালিক আলতাফ ও আইযুব আলীকে পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করেন।এ ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান ও থানা প্রশাসন আওয়ামীলীগ নেতার ছেলে রনিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং ভবিষ্যতে এরকম আর কোন ধরনের অপকর্মে লিপ্ত হবেনা বলে মুসলেকা দেন।
এ বিষয়ে দোহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো.সিরাজুল ইসলাম সমকালকে বলেন আনিছের ছেলে সন্ত্রাসী প্রকতির।তার বিরুদ্ধে আগেও অভিযোগ পেয়েছি কিন্ত অভিযোগকারীরা মামলা না করার কারনে রেহাই পেয়ে যায়।এবার আর ছাড়ছিনা

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00