দু’সপ্তাহের মধ্যে শুরু হতে পারে রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন

দু’সপ্তাহের মধ্যে শুরু হতে পারে রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন
bodybanner 00

বাংলাদেশ সরকার ৮ হাজার ২৩ জন রোহিঙ্গার যে তালিকা মিয়ানমারকে দিয়েছে, তা যাচাই-বাছাই করতে দু’সপ্তাহের মধ্যে শরণার্থীদের ফেরত নেয়ার কার্যক্রম শুরু হতে পারে বলে জানালেন মিয়ানমারের সমাজকল্যাণ, ত্রাণ ও পুনর্বাসনবিষয়ক মন্ত্রী ইউ উইন মিয়াত আই।

দু’সপ্তাহের মধ্যে শুরু হতে পারে রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন

বুধবার এমনটা জানালেন মিয়ানমারের সমাজকল্যাণ, ত্রাণ ও পুনর্বাসনবিষয়ক মন্ত্রী। বৃহস্পতিবার এমন তথ্য দিয়ে খবর প্রকাশ করে মিয়ানমার টাইমস। মিয়ানমার টাইমস এর প্রতিবেদনে ইউ উইন মিয়াত আই বলেন, বাংলাদেশ সরকার ৮ হাজার ২৩ জন রোহিঙ্গার যে তালিকা মিয়ানমারকে দিয়েছে, তা যাচাই-বাছাই করতে দু’সপ্তাহের মতো সময় লাগবে। এরপরই শুরু হতে পারে প্রত্যাবর্তন। তিনি আরও বলেন, যাচাই-বাছাই শেষ হলে স্থল ও নৌরুটে প্রতিদিন ৩শ’ শরণার্থীকে নিতে প্রস্তুত মিয়ানমার। দেশটির অভিবাসন বিভাগ জানায়, বাংলাদেশের দেয়া তালিকা প্রথমে যাচাই করবে দেশটির স্বরাষ্ট্র-বিষয়ক কর্তৃপক্ষ। এরপর অভিবাসন-বিষয়ক কর্মকর্তারা তালিকার সঙ্গে দেয়া তথ্য যাচাই করে দেখবেন।

মন্ত্রী ইউ উইন মিয়াত আইয় বলেন, যাচাই-বাছাই করা তালিকা আমরা বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করব এবং বাংলাদেশ সবুজ সংকেত দিলেই প্রত্যাবর্তন শুরু করা হবে। এ বিষয়ে মিয়ানমারের প্রেসিডেন্ট অফিসের মুখপাত্র ইউ জাওয়া হতাই বলেন, অভিবাসন-বিষয়ক কর্মকর্তারা এখন ৮ হাজারের বেশি শরণার্থী প্রত্যাবর্তনের বিষয়ে যাচাই-বাছাই করছেন। যেসব শরণার্থীর সঙ্গে ডকুমেন্ট আছে, তাদের গ্রহণ করবে মিয়ানমার। যতটা দ্রুত সম্ভব এ বিষয়ে কাজ করছি আমরা।

Facebook Comments

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00