দিল্লিতে রোহিঙ্গা শিবিরে আগুন, পুড়েছে ৫০ ঘর

দিল্লিতে রোহিঙ্গা শিবিরে আগুন, পুড়েছে ৫০ ঘর
bodybanner 00

ভারতের দিল্লিতে একটি রোহিঙ্গা শিবিরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ৫০টি ঘর পুড়ে গেছে। এ ঘটনায় গৃহহীন হয়েছে অন্তত ২৫০ জন রোহিঙ্গা। রবিবার ভোররাতের দিকে দিল্লির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকা কালিন্দি কুনজারিয়ার একটি রোহিঙ্গা শিবিরে এ অগ্নিকাণ্ড হয় বলে ভারতের বিভিন্ন গনমাধ্যম জানিয়েছে। তবে এ ঘটনায় কোনও পাণহানির খবর পাওয়া যায়নি।

পুলিশকে উদ্ধৃত করে সংবাদমাধ্যম দ্য ওয়্যার জানায়, রবিবার ভোর সাড়ে তিনটার দিকে কালিন্দি কুনজারিয়ার রোহিঙ্গা শিবিরে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের ১১টি ইঞ্জিন তিন ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। এ রোহিঙ্গা শিবির কালিন্দী কুঞ্জ মেট্রো স্টেশনের কাছে। শিবিরে বেশিরভাগ ঘর প্লাস্টিকের তৈরি হওয়ায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। বৈদ্যুতিক তারের শর্ট সার্কিট থেকেই আগুনের সূত্রপাত বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। সেখানকার বাসিন্দাদের অস্থায়ী শিবিরে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

এনডিটিভি বলছে, আগুন লাগার কারণে শিবিরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এবং চরম বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। বেশ কিছু স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা, পুলিশ এবং স্থানীয় বাসিন্দারা দুর্গতদের পাশে দাঁড়িয়েছে। সেখানকার অসহায় রোহিঙ্গারা বলছেন, আগুনে তাদের সব সম্বল পুড়ে গেছে। ব্যাংক অ্যাকাউন্ট না থাকায় জমানো সামান্য আর্থিক সম্বলটুকুও পুড়ে গেছে তাদের।

উল্লেখ্য, মিয়ানমারের রাখাইনে (আরাকান) সেনাবাহিনীর নিধনযজ্ঞের শিকার হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা। পাশাপশি ভারতের পূর্বাঞ্চল দিয়ে বিভিন্ন সময়ে দেশটিতে পালিয়েছে অন্তত ৪০ হাজারের মতো রোহিঙ্গা। এরা অসহায়ভাবে দিল্লি, জম্মু, হায়দারাবাদ, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, ও রাজস্থানে বসবাস করছে। স্থানীয়দের দ্বারা বিভিন্ন সময় তারা নানারকম নাজেহালেরও শিকার হন। সূত্র: দ্য ওয়্যার, এনডিটিভি

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00