ডাক্তারদের ওপর ‘মহা বিরক্ত’ শোয়ার্জনেগার

ডাক্তারদের ওপর ‘মহা বিরক্ত’ শোয়ার্জনেগার
bodybanner 00

হলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার। বডি বিল্ডার হিসেবেও যার রয়েছে বিশ্বজোড়া খ্যাতি। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যের ৩৮তম সাবেক গভর্ণরও তিনি। গত ২৯ মার্চ, বৃহস্পতিবার লস অ্যাঞ্জেলেসের একটি হাসপাতালে হার্টের সার্জারি করিয়েছেন তিনি। পেশাগত দিক থেকে রোগীদের বাঁচিয়ে তোলা বা সুস্থ করে তোলার জন্য সব চেষ্টাই করেন ডাক্তাররা। কাজেই, ডাক্তারদের মহান এ পেশার প্রতি সকলেরই একটা আলাদা সম্মান ও শ্রদ্ধাবোধ থাকে।

কিন্তু সার্জারি করা সেই ডাক্তারদের ওপরই চরম বিরক্ত হলিউড সুপারস্টার আর্নল্ড শোয়োর্জনেগার। কারণটা অবশ্য একটু হাস্যকর। কারণ, লস অ্যাঞ্জেলেসের ওই হাসপাতালের ডাক্তাররা নাকি শোয়ার্জনেগারকে ধুমপান করতে দিচ্ছেন না। কিন্তু ধুমপান ছাড়া একেবারেই থাকতে পারেননা অভিনেতা। এ জন্য নাকি কয়েক বার তিনি প্রকাশ্যে অভিযোগও করেছেন। শোয়ার্জনেগারের মুখপাত্র ড্যানিয়েল কিচেল শনিবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

কিচেলের দেয়া তথ্য মতে, সার্জারি শেষে জ্ঞান ফেরার পর আরও একটি হাসির কাণ্ড ঘটিয়েছেন তুমুল জনপ্রিয় এই অভিনেতা। জ্ঞান ফেরার পরই নাকি তিনি তার বিখ্যাত ‘টার্মিনেটর টু’ ছটির একটি সংলাপ বলে বসেন। সেটি হল, ‘আই অ্যাম ব্যাক’ অর্থাৎ, আমি ফিরে এসেছি।

 

১৯৬৯ সালে ‘হারকুলাস ইন নিউইয়র্ক’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আসেন ৭০ বছর বয়সী আর্নল্ড শোয়াজনেগার। ৪৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে তিনি অভিনয় করেছেন দুর্দান্ত প্রতাপের সঙ্গে। ‘টার্মিনেটর’ সিরিজের তিনটি ছবি তার ক্যারিয়ারে বিশেষ খ্যাতি এনে দেয়। এছাড়াও তিনি অভিনয় করেছেন দ্য ভিলেন, কমান্ডার, পাম্পিং আয়রন, কোনান দ্য বারবিয়ান, রেড হিট, ব্যাটম্যান এন্ড রবিন, দ্য লাস্ট স্ট্যান্ডের মতো তুমুল জনপ্রিয় সব ছবিতে।

বডি বিল্ডার হিসেবে মাত্র ১৫ বছর বয়স থেকেই ভারোত্তোলন শুরু করেন শোয়ার্জনেগার। ২২ বছর বয়সে হন মিস্টার ইউনিভার্স। এছাড়া তিনি সাত বার মিস্টার অলিম্পিয়া প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। অবসর নেয়ার পরও শোয়ার্জনেগার বডিবিল্ডিং বা শরীর গঠন জগতে একজন প্রখ্যাত ব্যক্তি। শরীর গঠন বিষয়ে তিনি একাধিক বই ও নিবন্ধ লিখেছেন।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00