ব্রেকিং নিউজঃ

জাতির জনকের জন্মদিন আজ

জাতির জনকের জন্মদিন আজ
bodybanner 00

আজ ১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মদিন। ১৯২০ সালের এই দিনে তদানীন্তন ভারত উপমহাদেশের বঙ্গ প্রদেশের অন্তর্ভুক্ত ফরিদপুর জেলার গোপালগঞ্জ মহকুমার টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। শেখ লুৎফর রহমান ও সায়েরা খাতুনের ছয় সন্তানের মধ্যে শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন তৃতীয়। তার সাহসী ও আপসহীন নেতৃত্বে অনুপ্রাণিত হয়েই পাকিস্তানি ঔপনিবেশিক শাসনের বিরুদ্ধে স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল বীর বাঙালি। বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। সরকারিভাবে দিবসটি ‘জাতীয় শিশু দিবস’ হিসেবে উদ্যাপিত হবে। আর যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালনের জন্য দুদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। কর্মসূচি সম্পর্কে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, ১৭ মার্চ সকাল সাড়ে ৬টায় ধানম-ি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু ভবন ও দেশব্যাপী দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন; সকাল ৭টায় বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে রক্ষিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ; অন্যদিকে সকাল ১০টায় আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের প্রতিনিধি দল টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণসহ বাদ জোহর দোয়া ও মিলাদ মাহফিল; এ ছাড়াও সেখানে আয়োজন করা হয়েছে শিশু সমাবেশ, গ্রন্থমেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এরই অংশ হিসেবে ১৮ মার্চ বিকাল ৩টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সস্মেলনকেন্দ্রে হবে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম বিষয়ে আলোচনাসভা। এতে সভাপতিত্ব করবেন দলের সভাপতি শেখ হাসিনা।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কিশোর বয়সেই সক্রিয় রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। গোপালগঞ্জের মিশন স্কুলে অষ্টম শ্রেণিতে অধ্যয়নকালে তৎকালীন ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনে যোগ দেওয়ায় তিনি প্রথমবারের মতো গ্রেপ্তার হয়ে কারাবরণ করেন। সেই থেকে শুরু হয় বঙ্গবন্ধুর আজীবন সংগ্রামী জীবনের অভিযাত্রা। বঙ্গবন্ধু তার সহকর্মীদের নিয়ে ১৯৪৮ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এবং পরবর্তীতে ১৯৪৯ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ গঠন করেন। ১৯৪৭ সালে দেশ বিভাগ ও স্বাধীনতা আন্দোলন, ’৫২-এর ভাষা আন্দোলন, ’৫৪-র যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ’৬২-র শিক্ষা আন্দোলন, ’৬৬-র ছয় দফা আন্দোলন, ’৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান পেরিয়ে ১৯৭০ সালের ঐতিহাসিক নির্বাচনে তিনি বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা হিসেবে পরিণত হন। ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে তার ঐতিহাসিক ভাষণ দেন। আপসহীন নেতৃত্বে অনুপ্রাণিত হয়েই স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল বাঙালি। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাত্রিতে বিশ্বাসঘাতকদের তপ্ত বুলেটে সপরিবারে নিহত হন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00