জবির বাসে হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

জবির বাসে হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ
bodybanner 00

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীদের মাওয়াগামী আড়িয়াল বাসে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মানবন্ধন করেছেন জবি শিক্ষার্থীরা।
জবির বাসে হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভবৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১০ টার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন হয়। এতে জবির আড়িয়াল বাসে চলাচলকারী শিক্ষার্থীরা ছাড়াও বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন। বিক্ষোভ মিছিলটি বিশ্বববিদ্যালয়ের শান্ত চত্বর থেকে শুরু করে বিজ্ঞান ভবন, কলা ভবন হয়ে শান্ত চত্বরে এসে মানববন্ধনে রূপ নেয়। মানববন্ধনে বক্তরা বলেন, শিক্ষার্থীদের বাসে সাধারণ যাত্রী কিংবা স্থানীয়রা প্রায়ই ওঠার চেষ্টা করেন। এতে বাধা দিলে তারা শিক্ষার্থীদের ওপর ক্ষেপে যায়। যার চূড়ান্ত রূপ গত ২০ তারিখের হামলা। তারা প্রশাসনের কাছে এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন। এই রুটে শিক্ষার্থীদের ওপর এ নিয়ে দ্বিতীয় বারের মত হামলা করেছে সন্ত্রাসীরা। তারপরও কারো শাস্তি হয়নি।

এসময় বক্তরা হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, যদি এ বিষয়ে অতি দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে সন্ত্রাসীদের শাস্তির ব্যবস্থা না করা হয় তাহলে রাস্তা বন্ধ করে আন্দোলনে যাবে জবি শিক্ষার্থীরা। এ বিষয়ে আড়িয়াল বাসের চালক ইসহাক বলেন, গত ২০ ফেব্রুআরি বিকাল ৫টার দিকে আড়িয়াল বাসটি দ্বিতীয় ধলেশ্বরী সেতুর উপর জ্যামে আটকা পড়লে কয়েকজন শিক্ষার্থী বাস থেকে নেমে যানজট ছাড়ানোর চেষ্টা করেন। এসময় সোহেল রানা নামে এক ব্যক্তি এসে শিক্ষার্থীদের ওপর চড়াও হয় এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এতে শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ করলে রানা এবং ইমরানসহ আরো কয়েকজন মিলে ছাত্রদের ওপর চড়াও হয়ে মারধর করে এবং আড়িয়াল বাসে হামলা করে। এতে হিসাববিজ্ঞান বিভাগের দশম ব্যাচের লোটাস, ইতিহাস বিভাগের সোহাগ (৮ম ব্যাচ), সম্রাট (ফিন্যান্স ১০ম ব্যাচ) নাঈমসহ (১২ তম ব্যাচ) ১৫ জন শিক্ষার্থী আহত হন। এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. নূর মোহাম্মদ বলেন, আমরা বিষয়টি উপাচার্যকে জানিয়েছি। তিনি মামলা করার জন্য আমাদের নির্দেশনা দিয়েছেন। জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00