জগন্নাথপুরে আব্দুস সামাদ আজাদ সড়কের নির্মাণ কাজ চলছে

জগন্নাথপুরে আব্দুস সামাদ আজাদ সড়কের নির্মাণ কাজ চলছে
bodybanner 00
মোঃ হুমায়ূন কবীর ফরীদি,জগন্নাথপুর(সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
জগন্নাথপুরে আব্দুস সামাদ আজাদ আঞ্চলিক মহা সড়কের পৌর শহর এলাকায় নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে চলছে। নয়নাবিরাম সড়ক নির্মাণে পাল্টে যাচ্ছে জগন্নাথপুর পৌর শহরের দৃশ্যপট। শর্ত অনুযায়ী ঠিকাদারী প্রতিষ্টান আঞ্চলিক মহা সড়কের জগন্নাথপুর পৌর শহরের ১ কিলোমিটার অংশে রিজিড প্যাভমেন্ট নির্মান কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর   উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল থেকে পৌর শহরে বিভিন্ন প্রয়োজনে আসা জন সাধারন মহাসড়কের ব্যতিক্রমী নির্মাণ কাজ দেখে অনেকেই হতবাক দৃষ্টিতে দাঁড়িয়ে কাজের দৃশ্যপট অবলোকন করতে দেখা গেছে। সিলেট বিভাগের মধ্যে উন্নত মানের রিজিড প্যাভমেন্ট কাজের মধ্যে জগন্নাথপুর উপজেলায় এটি দ্বিতীয় কাজ।
সংশ্লিষ্ট দপ্তর সূত্রে জানা গেছে পৌর শহরের ১কিলোমিটার অংশে রিজিড প্যাভমেন্ট কাজ হওয়ায় শতাধিক বছরেও সড়কের ক্ষতি হবেনা। সম্পূর্ন ব্যতিক্রমী মহা সড়কের নির্মান কাজ সম্পূর্ন হলে পৌর শহরের প্রধান ব্যবসা কেন্দ্র জগন্নাথপুর বাজারের বিভিন্ন মার্কেট, বিপনী বিতানগুলোতে সৌন্দর্য্য বর্ধন সৃষ্টি হবে।
ইতোমধ্যে শহরের বেশ কয়েকটি মার্কেট বিপনী বিতানগুলোতে চলছে আধুনিকায়নের কাজ। এই মহাসড়কের কাজ শেষ হলেই নান্দনিক শহরে রূপান্তরিত হবে প্রবাসী অধ্যুষিত জগন্নাথপুর পৌরসভা।
জানাযায়, পাগলা-জগন্নাথপুর-আউশকান্দি আব্দুস সামাদ আজাদ আঞ্চলিক মহা-সড়কের দক্ষিন সুনামগঞ্জ উপজেলার ডাবর পয়েন্ট থেকে জগন্নাথপুর পৌর শহরের হবিবনগর এলাকা পর্যন্ত ৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ে দরপত্রের মাধ্যমে ২২কিলোমিটার সড়কের মধ্যে ২১ কিলোমিটার সড়কের পুন:সংস্কার ও ১ কিলোমিটার অংশে রিজিড প্যাভমেন্ট নির্মাণ কাজটি পেয়েছেন ঢাকার এম এম বিল্ডার্স ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড-ইন্সপ্যাকটা ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেড জেবি। আড়াই বছর মেয়াদের মধ্যে কাজ সম্পন্ন করনের আদেশ অনুযায়ী ২১কিলোমিটারের মধ্যে ১টি ব্রিজ ও ১টি কালভার্ট নির্মান করা হবে। আঞ্চলিক মহাসড়কের জগন্নাথপুর পৌর শহরে ১কিলোমিটার অংশে সড়কটির নাজুক দশার ফলে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নানের নির্দেশে ঠিকাদারী প্রতিষ্টান প্রথমেই পৌর শহরের ১কিলোমিটার অংশে এপ্রিল মাসে রিজিড প্যাভমেন্ট কাজ শুরু করলেও গত ১৯মে আনুষ্টানিক ভাবে সড়কের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেছেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান।
 সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের দরপত্রের শর্ত অনুযায়ী ঠিকাদারী প্রতিষ্টান সড়কটিতে প্রথমে স্কেরিপাই (আচরানু) এসকে বেটর দিয়ে উচু নীচু সমান করার পরে লেবেল করার জন্য রুলার ও সাব বেজ মেটেরিয়াল দিয়ে লেবেল করা হয়। পুনরায় রুলার দিয়ে কমপেকশন করার পর ৪ ইঞ্চি (১শ মিলি) সিসি ঢালাই পরে ১২ ইঞ্চি (৩শ মিলি) আরসিসি ঢালাই যা রিজিড প্যাভমেন্ট হিসেবে পরিচিত। এতে ১০, ১২, ১৬ ও ৩২ মিলিমিটারের সঠিক মানের রড এবং সিমেন্ট ব্যবহার করা হচ্ছে।
এছাড়াও কাজের গুনগত মানের জন্য সাইট ল্যাবরেটরীতে পরীক্ষা করে কাজের প্রয়োজনীয় মালামালের গুনগত মান নিশ্চিত হওয়ার পর কাজ করা হচ্ছে। এসব নির্মান সামগ্রী স্থানীয়ভাবে পরীক্ষা করা সম্ভব না হলে বুয়েট থেকে পরীক্ষা করার পর নির্মান সামগ্রীগুলো কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে।
এদিকে মহাসড়টির রিজিড প্যাভমেন্ট কাজের ঠিকাদারী প্রতিষ্টানের শতাধিক নির্মান শ্রমিক প্রতিদিন কাজ করছেন।
সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর সুনামগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: শফিকুল ইসলাম জানান, দরপত্রের শর্ত অনুযায়ী গুনগত মান যাছাই পূর্বক ঠিকাদারী প্রতিষ্টান ইতোমধ্যে মহাসড়কের নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।
নির্মান কাজটি সুষ্টুভাবে সম্পন্ন করনে শহরবাসী সহ সর্ব মহলের সহযোগিতা কামনা করেছেন ।
ঠিকাদারী প্রতিষ্টানের প্রজেক্ট ম্যানেজার প্রকৌশলী হারুন অর রশীদ জানান, জগন্নাথপুর পৌরসভার স্লুইচ গেইট থেকে হবিবনগর পর্যন্ত ১কিলোমিটার অংশে দ্রুত গতিতে কাজ চলছে।  জনপথ অধিদপ্তরের সার্ভে অনুযায়ী সড়কটির কাজ চলমান রয়েছে। রিজিড প্যাভমেন্ট কাজ শেষে দু-পাশের ড্রেনেজ কাজ সম্পন্ন করা হবে।
এদিকে জগন্নাথপুর-দক্ষিন সুনামগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নানের প্রচেষ্টায় পাগলা-জগন্নাথপুর-রানীগঞ্জ-আউশকান্দি পর্যন্ত আব্দুস সামাদ আজাদ আঞ্চলিক মহা সড়কটির ২১ কিলোমিটার অংশে পুনঃসংস্কার এবং পৌর শহরের ১কিলোমিটার অংশে রিজিড প্যাভমেন্ট নির্মান কাজ শুরু হয়েছে।
এছাড়াও কুশিয়ারা নদীতে সিলেট বিভাগের বৃহৎ রানীগঞ্জ সেতুর নির্মান কাজও চলমান রয়েছে। জগন্নাথপুর উপজেলাবাসীর স্বপ্ন পুরনে বৃহৎ ২টি কাজ রানীগঞ্জ সেতু ও আঞ্চলিক মহাসড়কের নির্মান কাজ চলমান থাকা এবং শীঘ্রই সম্পন্ন করনে প্রানপন প্রচেষ্টার ফলে উপজেলাবাসী অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নানের প্রতি অভিনন্দন জানিয়েছেন।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00