চুয়াডাঙ্গায় হুইপ ছেলুনের নেতৃত্বে ১৪ দলের কর্মী সমাবেশে অনুষ্ঠিত

চুয়াডাঙ্গায় হুইপ ছেলুনের নেতৃত্বে ১৪ দলের কর্মী সমাবেশে অনুষ্ঠিত
bodybanner 00
মামুন মোল্লা,চুয়াডাঙ্গা:
আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে পর্যায়ক্রমে জেলার চারটি  উপজেলায় হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুনের নেতৃত্বে দেশের উন্নয়নের ধারাকে সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে জেলা ব্যাপী ১৪ দলের নেতা কর্মীদের নিয়ে কর্মী সমাবেশ ও গনসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন।
ইতোমধ্যেই জীবনগর উপজেলার বঙ্গবন্ধু মুক্তমঞ্চে ১৪ দলের নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে
আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নজরুল মল্লিকের নেতৃত্বে ১৪ দলের বিশাল কর্মীসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বিএনপির নেতারা যেন আওয়ামীলীগে প্রবেশ করতে না পারে এ ব্যাপারে সজাগ থেকে সবাইকেই ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।
গতকাল বিকাল চারটায় অনুষ্ঠিত সেহেরাওয়ার্দী স্মরনী  বিদ্যাপিঠ  মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ১৪ দলীয় জোটের কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা ১৪ দলের সমন্নয়ক উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল মান্নান নান্নুর সভাপতিত্বে কর্মি সভায়  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে গুরুত্ব পূর্ণ বক্তব্য রাখেন  চুয়াডাঙ্গা জেলা ১৪ দলের সমন্নয়ক জেলা আওয়ালীগের সভাপতি চুয়াডাঙ্গা ১ আসনের সংসদ সদস্য জাতীয় সংসদের হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন ,
 বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন  ১৪ দলের জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু জাসদের সাধারন সম্পাদক এ্যাড আকিজুল ইসলাম রতন ,
জাসদ (আম্বিয়া)সাধারন সম্পাদক শামসুল আলম,চুয়াডাঙ্গা জেলা সাম্যবাদী দলের আহবায়ক আলাউদ্দিন ওমর,চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি নজরুল মল্লিক,যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক সাবেক পৌর মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন,
জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক  এ্যাড আব্দুল মালেক , সদস্য শংকরচন্দ্র ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান,চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা জাসদের সভাপতি আবুল হোসেন মন্ডল , সাধারন সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক লাবলুর রহমান,চুয়াডাঙ্গা জেলা যুব মৈত্রীর সভাপতি মামুন উর রসিদ,বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও রাজশাহী মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মর্জিনা পারভিন।
১৪ দলের কর্মি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হুইপ ছেলুন এম পি  বলেন আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চত করতে হলে সকল নেতা কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।
 এসময় তিনি আরো বলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন তা আজ পুরনের পথে।  তার এ অসম্পূর্ণ কাজ গুলো তারই সুযোগ্য  কন্যা বর্তমান সফল প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সম্ভব হয়েছে ।
এক সময় দেশের মানুষ অনাহারে দিন যাপন করেছে , সন্ত্রাসের জন্য ঘরে ঘুমাতে পারিনাই।বিএনপি জামাত এর নেতৃত্তে সারা দেশে আগুন সন্ত্রাস, বোমাবাজি করে আমাদের এই সোনার বাংলা কে জঙ্গি রাষ্ট্রে পরিনত করতে চাইছিল খালেদা জিয়া।
কিন্তু আমাদের নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদক্ষ ও সাহসী সিদ্ধান্তে বাংলাদেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে পারে নাই বাংলাদেশ আজ মধ্যমায়ের উন্নয়নশীল দেশে রুপান্তরিত হয়েছে।
তিনি আওয়ামীলীগ নেতা কর্মিদেরকে বলেন  বিএনপি নেতাকর্মি দের কে  আওয়ামীলীগে যোগদান থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেন।
কারন ওই বিএনপি নেতাকর্মীরাই দলে যোগ দেওয়ার কিছুদিন পরই আওয়ামীলীগ কে দ্বিখণ্ডিত করে দলের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করবে।এদিকে সতর্ক থাকার আহব্বান জানান।বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া এতিমের টাকা মেরে খেয়েছে।
এতিমের  টাকা ব্যাংক থেকে তুলে নিজের ব্যাক্তিগত এ্যাকাউন্টে জমা করেছে।
বিএনপি জামাত সরকারের সময় বাংলাদেশ দুর্নীতিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল কিন্তু বর্তমান আওয়ামীলীগ তথা ১৪ দলের সরকারের সময় বাংলাদেশ শিক্ষা,কৃষি, স্বাস্থ্যখাতে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সহ বিশ্বের কাছে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল  মডেল হয়েছে।
সারা বিশ্ব এখন বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে হতবাক হয়েছে।
বাংলাদেশ আজ স্বয়ং সম্পুর্ণ আজ কিন্তু বর্তমান সরকার  ক্ষমতায় আসার পর মানুষের ভাগ্যের উন্নতি হয়েছে।
বাংলাদেশ এখন বিশ্বর দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে , নিম্ম আয়ের দেশ থেকে নিম্ম মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে।
তিনি আরো বলেন বিএনপি জামাত জোট সরকারের সময় আমাদের নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা কে ২১ বার হত্যা করার চেষ্টা করা হয়ে ছিল কিন্তু আল্লাহর রহমতে জনগনের দোয়াই আজকের প্রধান মন্ত্রী দেশ রত্ন শেখ হাসিনা বেচে গিয়েছিল।
প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড  এর নেতাকর্মী দেরকে আগামী একদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক কে বিজয়ী করার জন্য এখন থেকে সরকাররে উন্নয়নের কর্মকান্ড গুলো জনগনের মাঝে প্রচার করার নির্দেশ দেন। আর এক উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে এবং শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে  আবারো নৌকায় ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান।
আরো উপস্থিত ছিল চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামীলীগ সহ সভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদ,খুস্তার জামিল,সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদুজ্জামান লিটু,যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক আরশাদ উদ্দিন আহাম্মেদ চন্দন,দপ্তর সম্পাদক এ্যাড আবু তালেব বিশ্বাস, সদস্য কুতুবপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান শাখাওয়াৎ হোসেন টাইগার,সদস্য কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি মজিবর রহমান,উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ সভাপতি হাবিবর রহমান, সাধারন সম্পাদক লতিফ সর্দার,আলুকদিয়া ইউপি আওয়ামীলীগ সভাপতি আনোয়ার হোসেন,সাধারন সম্পাদক আক্তারুল রহমান মুকুল,মমিনপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক খালিদ হাসান মিলন,পদ্মবিলা ইউপি আওয়ামীলীগ সভাপতি আমজাদ হোসেন,সাধারন সম্পাদক খাজাউল্লা,শংকরচন্দ্র ইউপি আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক আনোয়ার,কুতুবপুর ইউপি চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান মানিক,তিতুদহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা শুকুর আলি,জাহিদুল ইসলাম জাহিদ,উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি আবুসুফিয়ান বিল্লাল, চুয়াডাঙ্গা জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কহিনুর বেগম, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সভাপতি শেফালী খাতুন,চুয়াডাঙ্গা পৌর মহিলা আওয়ামীলীগ সাধারম সম্পাদক নাবিলা রুকসানা ছন্দা,চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আমির হোসেন, যুগ্ন-আহবায়ক নিলুয়ার হোসেন,সাবান মাহামুদ,জীবন নগর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক কাজী শামসুর রহমান চঞ্চল,চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম,সহ সভাপতি শাহাবুল হোসেন,চুয়াডাঙ্গা পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি মিরাজুল ইসলাম কাবা প্রমুখ ১৪ দলের অঙ্গ ও  সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী বৃন্দ।
কর্মি সভাটি পরিচালনা করেন চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ এর ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00