ঘোষিত উপকমিটি ও সহ-সম্পাদকদের তালিকা বাতিলের দাবিতে নেতাদের ক্ষোভ

ঘোষিত উপকমিটি ও সহ-সম্পাদকদের তালিকা বাতিলের দাবিতে নেতাদের ক্ষোভ
bodybanner 00
কেন্দ্রীয় উপকমিটি নিয়ে আওয়ামী লীগে তোলপাড় শুরু হয়েছে। ঘোষিত উপকমিটি ও সহ-সম্পাদকদের তালিকা বাতিলের দাবিতে সাবেক সহ-সম্পাদক ও ছাত্রলীগের সাবেক নেতারা বিস্ফোরণোন্মুখ হয়ে আছেন। এ দাবিতে শ’খানেক নেতা শুক্রবার দিনভর আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয় ধানমন্ডিতে অবস্থান নিয়েছিলেন। কমিটি বাতিল না হওয়া পর্যন্ত প্রতিদিন এ অবস্থান কর্মসূচি চলবে বলে তারা জানিয়েছেন।
কেন্দ্রীয় উপকমিটি নিয়ে তোলপাড়, আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয় নেতাদের ক্ষোভ
শুক্রবার দুপুরের পর থেকে ছাত্রলীগের সাবেক নেতারা আওয়ামী লীগের ধানমন্ডির কার্যালয়ে অবস্থান নেন।
বিকাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগের কোনো নেতার সাক্ষাৎ পাননি। পরে সন্ধ্যা ৭টার দিকে কার্যালয়ে গিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তাদের সঙ্গে কথা বলেন। মিনিট পাঁচেকের আলোচনায় ওবায়দুল কাদের বিক্ষুব্ধদের বলেন, ঘোষিত উপকমিটির সহসম্পাদদের বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না। ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কিসের সহ-সম্পাদক! কিসের তালিকা! সব বাতিল… আমার স্বাক্ষর আছে সেখানে?’ ওবায়দুল কাদের বলেন, নেত্রীর (শেখ হাসিনা) অনুমতি নিয়ে সহসম্পাদক ঘোষণা করা হবে।
সূত্র জানায়, শনিবার ঘোষিত কমিটির পদবঞ্চিত এসব সাবেক সহসম্পাদক ও ছাত্রলীগ নেতাদের বড় শোডাউন হতে পারে আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি কার্যালয়ে। এসব নেতাদের সব ক্ষোভ দলের দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপের ওপর। গতকাল দলীয় কার্যালয়ে গোলাপ আসেননি। এদিকে পুরো বিষয়টি নিয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দু-একজন নেতা ছাড়া বাকি সব নেতাদের মধ্যেও ক্ষোভ বিরাজ করছে। কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতা বিষয়টি আখ্যা দিয়েছেন ‘নোংরামি’  বলে। এক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘এসব বিষয়ে আমার ইন্টারেস্ট নাই।’ এক সাংগঠনিক সম্পাদক তার সঙ্গে যুক্ত করে দেওয়া সহ-সম্পাদকদের নিজেই চিনেন না। তিনি বলেন, এ প্রক্রিয়া সম্পর্কে আমরা কিছুই জানি না।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00