ব্রেকিং নিউজঃ

এসি কেনার টিপ্‌স , কেনার সময় খেয়াল রাখতে হবে যে বিষয়গুলো

এসি কেনার টিপ্‌স , কেনার সময় খেয়াল রাখতে হবে যে বিষয়গুলো
bodybanner 00

Air Conditioner YouTube Video  Review in Bangla – Click Here

গ্রীষ্মের দাবদাহ থেকে রেহাই পেতে বাড়িতে একটা এসি না হলেই নয়। তবে কেনার আগে খেয়াল রাখবেন এসি অনেক ধরনের হয়। আপনার বাড়ির ধরন বুঝেই এসি কেনার চেষ্টা করবেন। বাড়িতে জানালা থাকলে বসাতে পারেন উইন্ডো এসি

ভেতরের গরম হাওয়া বাইরে বের করে দেবে। বাইরের ঠাণ্ডা হাওয়া ঘরের ভেতরে আসতে সাহায্য করবে এই নির্দিষ্ট এসি। যদি একটা মাত্র ঘরের জন্য এসি চান তাহলে উইন্ডো এয়ার কন্ডিশনার সঠিক অপশন। টাকা পয়সার সাশ্রয় হবে। আবার ঘরের কুলিং সিস্টেমও অক্ষুণ্ণ থাকবে।

তবে বাড়িতে যদি সেই রকম জানালা না থাকে, অথবা আপনি যদি জানালায় এসি বসাতে না চান তাহলে পোর্টেবল এয়ার কন্ডিশনার কিনতে পারেন। তবে খেয়াল রাখবেন, এই ধরনের এয়ার কন্ডিশনারে কিন্তু আওয়াজ বেশি হয়। আপনার সুবিধা মতো বাড়ির ফ্লোরে ইনস্টল করা থাকবে এসি।

ছাত্রলীগের নতুন কমিটির প্রতিবাদে বিক্ষোভ : সা.সম্পাদকের কুশপুত্তলিকা দাহ

বিদ্যুতের সাশ্রয় এয়ার কন্ডিশনারে দাম কত ও কোথায় পাবেন বাংলাদে-Click Here

 

তবে পোর্টেবল এসি কেনার সময় অ্যাডজাস্টেবল হোসটি অবশ্যই দেখে নেবেন। সিঙ্গল হোসের চেয়ে ডুয়েল হোসের এসি ঘর ঠাণ্ডা রাখতে বেশি কাজ দেবে।

তবে ঘরের আয়তন তুলনামূলকভাবে অনেকটাই বড়ো হলে, স্প্লিট এসি বা ডাক্টলেস এসি ব্যাবহার করতে পারেন। বসার ঘর অনেক সময়েই বাড়ির অন্যান্য ঘরের চেয়ে বড়ো হয়।

সেক্ষেত্রে স্প্লিট এসি অনেক বেশি কাজে দেবে। তবে চিরাচরিত এয়ার কন্ডিশনার যদি পছন্দ না হয় অনেক স্মার্ট অপশনও এখন আছে। যেমন ধরুন আপনার স্মার্ট ফোন থেকেই নিয়ন্ত্রণ করা যাবে এয়ার কন্ডিশনারের মাত্রা। শুধু ওয়াইফাই কানেকশন থাকতে হবে। আপনার মোবাইল ফোনে ইনস্টল করে দেওয়া হবে একটি অ্যাপও। সেই অ্যাপ চালু থাকলে আপনার এসি আপনা থেকেই বুঝে যাবে কখন আপনি ঘরে আছেন, কখনই বা নেই। সেই মতোই হবে ঘর ঠাণ্ডা রাখার ব্যবস্থা।

এসি কেনার কেনার আগে দরদাম জানুন

এসি কেনার আগে তার দরদাম আগে থাকতেই জানা থাকলে আপনার কেনার সময় সুবিধা হবে। কারণ তাতে বাজেটের থেকে বেশি খরচা হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে।

এসি কেনার আগে ভালো করে নিজের ঘরের আয়তন সম্পর্কে ভালো করে ধারণা করে নিন। নিজের ঘরের আয়তন অনুযায়ী এসি যদি কেনেন তাহলে ঘর অনেক ভালো ভাবে ঠাণ্ডা হবে।

আবার টাকা সাশ্রয় অনেকটাই সাহায্য করবে। কোন ব্র্যান্ডের এসি কিনছেন, তার উপরে অনেকটাই নির্ভর করছে এসির দাম। দেড় টনের উইন্ডো এসি কেনার জন্য অন্ততপক্ষে বাজেট রাখুন ৩৫ হাজার টাকার মতো৷ এক টনের উইন্ডো এসির জন্য ২৫ হাজার টাকার মতো খরচ পড়বে।

স্প্লিট এসির দাম তুলনামূলক ভাবে একটু বেশি। ঘর যদি সত্যিই বড়ো হয় তাহলে অন্তত: দেড় টনের এয়ার কন্ডিশনার না কিনলে তেমন লাভ হবে না। দেড় টনের স্প্লিট এসির জন্য বাজেট রাখুন ৪৫ – ৯৫ হাজার টাকা। আপডেট দাম জানতে ব্রান্ড বাাজারের  ওয়েবসাইট (BrandBazaarBD.com)  এ দেখুন।

বিদ্যুতের সাশ্রয় এয়ার কন্ডিশনারে দাম কত ও কোথায় পাবেন বাংলাদে-Click Here

তবে ৪৫ হাজারেও দেড় টনের এসি পাবেন। ১ টন পোর্টেবল এয়ার কন্ডিশনারের দাম পড়বে ৩৫ থেকে ৪২ হাজার টাকার মতো। ওয়াইফাই ব্রান্ড বাজারে  এসির দাম স্বাভাবিক ভাবেই একটু কম। এক টনের ওয়াইফাই  এসির দাম পড়ে ৪৫-৬৫ হাজার টাকার কিছু বেশি। ঘর ঠাণ্ডা রাখার জন্য আর একটু সস্তা বিকল্প খুঁজতে চান তাহলে এয়ার কুলার কিনতে পারেন। ভালো মানের এয়ার কুলারের জন্য বাজেট রাখুন অন্তত: পাঁচ হাজার টাকার মতো। বাজেট যদি আর একটু বাড়াতে চান, তাহলে ১২ হাজার টাকার মধ্যেও কিন্তু এয়ার কুলার পেয়ে যাবেন।

ছোট ঘরকে ঠাণ্ডা রাখার জন্য মিনি এয়ার কুলারও কিনতে পারেন। বাজেট রাখুন তিন হাজার টাকার মতো। তবে যে এয়ার কন্ডিশনার বা এয়ার কুলারই কিনুন না কেন, ভালো করে দেখে নিন, সেই নির্দিষ্ট শীতাতপ যন্ত্রটি বিদ্যুতের সাশ্রয় করতে কতটা সক্ষম।

বিদ্যুতের সাশ্রয় এয়ার কন্ডিশনারে দাম কত ও কোথায় পাবেন বাংলাদে-Click Here

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00