ব্রেকিং নিউজঃ

“একটি উজ্জ্বল নক্ষত্রের পতন” চিরনিদ্রায় শায়ীত মেধাবী  শিক্ষার্থী  রিমতি ॥

“একটি উজ্জ্বল নক্ষত্রের পতন” চিরনিদ্রায় শায়ীত মেধাবী  শিক্ষার্থী  রিমতি ॥
bodybanner 00
মোয়াজ্জেম হোসেন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি ॥
হাজারো মানুষের ভালোবাসার অশ্রুজলে সিক্ত হয়ে চিরনিদ্রায় শায়ীত হলেন ঢাকা সিটি কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের মেধাবী শিক্ষার্থী সানজিদা জামান রিমতি। মঙ্গলবার সকাল দশটায় পটুয়াখালীর কলাপাড়া পৌর শহরের এতিমখানা জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে নামাজে জানাযা শেষে এতিমখানা গোরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়।
প্রিয় কন্যা সন্তানের কফিন বাবার কাধে। বহন করে নিয়ে যাচ্ছেন দাফনের জন্য। এসময় কান্না জড়িত কন্ঠে রিমতির পিতা কামরুজ্জামান মাসুম বলতে থাকেন, আমার সাথে রাগ করে, আমার মা চলে গেছে না ফেরায় দেশে। আর কোনদিন মা নাউর হয়ে ফিরে আসবে না আমার কাছে। প্রিয় কন্যা সন্তানের জন্য পিতার এমন আহাজারিতে জানাযায় উপস্থিত হাজারো মানুষের চোখে নামে অশ্রুর বান।
সানজিদা জামান রিমতি’র পারিবারিক সূত্র জানায়, কলাপাড়া পৌরশহরের এতিমখানা রোডের বাসিন্দা উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক কামরুজ্জামান মাসুমের কন্যা। সে কলাপাড়া বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে ২০১৫ সালে এসএসসিতে এ প্লাস, ২০১৭ সালে এমবি কলেজ থেকে এইচএসসিতে এ প্লাস পেয়ে ঢাকা সিটি কলেজে একাউন্টিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থী ছিলেন।
রবিবার (৮ জুলাই ) হঠাৎ থ্যালাসমিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা সরোয়ার্দী হাসপাতালে ভর্তি হলে সোমবার সকাল সাড়ে দশটায় সবাইকে কাদিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় না ফেরার দেশে চলে যান। রিমতির মৃত্যুর খবর মূহুর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে শোকের ছায়া নেমে আসে গোটা এলাকায়। ওইদিন রাত ১২টা এ্যাম্বুলেন্সযোগে রিমতির মরাদেহ গ্রামের বাড়ি কলাপাড়া পৌরশহরের ৪নং ওয়ার্ডে নিয়ে আসা হয়। মেধাবী, সদালাপী ও সদাহাস্যময়ী এ শিক্ষার্থীর স্বজনদের গগণ বিদারি আহাজারিতে ভারি হয়ে ওঠে আশেপাশের পরিবেশ। রিমতিকে একনজর দেখতে গভীর রাত থেকেই ভিড় জমায় হাজারো মানুষ।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00