ব্রেকিং নিউজঃ

ইতালীতে পৌছে দূর্বৃত্তদের হাতে নিহত হয়েছে  জগন্নাথপুরের রুহুল

ইতালীতে পৌছে দূর্বৃত্তদের হাতে নিহত হয়েছে  জগন্নাথপুরের রুহুল
bodybanner 00
মোঃ হুমায়ূন কবীর ফরীদি, জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
সংসারের অভাব অনটন দূর করে স্বচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে বহু স্বপ্ন নিয়ে জীবন বাজি রেখে লিবিয়া হয়ে দালালের মাধ্যমে  বোটে সাগর পাড়ি দিয়ে ইতালি গিয়েছিল সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলাধীন কলকলিয়া ইউনিয়নের বালিকান্দী নিবাসী হত-দরিদ্র দিন মজুর মোঃ আব্দুল হান্নান এর ছেলে রুহুল আমিন। কিন্তু দূর্বৃত্তরা তার এই সোনালী  স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে দেয়নি। বিগত প্রায় ২ সপ্তাহ আগে এক দল যুবক তাকে মারধর করে, এতে তার মুখে ও মাথায় গুরুত্বর জখম হয়। রক্তাক্ত মুমুর্ষ অবস্থায় রাস্তায় ফেলে গেলে ইতালিয়ান পুলিশ তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করে। ২০ শে সেপ্টেম্বর রুহুল আমিনের মৃত্যু  হয়েছে। কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে বিস্তারিত জানেনা পরিবার। রুহুল আমিন ইতালিতে মৃত্যু বরন করেছে এমন সংবাদ মুঠোফোনে পাওয়ার  সাথে সাথে পরিবারে শোকের মাতম চলছে। আকাশ -বাতাস ভারী হয়ে আসছে। কান্না  থামছেনা মা-বাবা সহ পাড়া,প্রতিবেশীও আত্মীয়-স্বজনদের।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়,বিগত ২০মে স্থানীয় দালালের মাধ্যমে ৬ লাখ ৫০ হাজার টাকার চুক্তিতে লিবিয়া হয়ে ইতালি রওয়ানা হয় রুহুল আমিন। কিছু দিন লিবিয়া অবস্থানের পর ইঞ্জিন নৌকা যোগে সাগর পাড়ি দিয়ে ইতালিতে পৌঁছে সিসিলো ক্যাম্পে আশ্রয় পেয়েছিল। কয়েক দিনের মধ্যে থাকার অনুমতিপত্র দেওয়া হবে বলে মা-বাবাকে জানায়েছিল রুহুল আমিন।  বিগত প্রায় ২ সপ্তাহ আগে এক দল যুবক তাকে মারধর করে, এতে তার মুখে ও মাথায় গুরুত্বর জখম হয়।দুর্বৃত্তরা রক্তাক্ত মুমুর্ষ অবস্থায় রাস্তায় ফেলে গেলে ইতালিয়ান পুলিশ তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করে।
নিহত রুহুল আমিনের দিনমুজুর পিতা তার ছেলে রুহুল আমিনের মৃত্যুর সঠিক তদন্তপূর্বক দোষীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহন ও ছেলের লাশ দেশে এনে পারিবারিকভাবে দাফনের ব্যবস্থা করতে স্থানীয় এম.পি অর্থ পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম.এ মান্নানসহ পররাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00