আদমদীঘির ভাজা বিক্রেতা রুবেল অর্থাভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেন না

আদমদীঘির ভাজা বিক্রেতা রুবেল অর্থাভাবে চিকিৎসা করাতে পারছেন না
bodybanner 00

স্টাফ রিপোর্টার:

মানুষ মানুষের জন্যে—জীবন জীবনের জন্যে—-একটু সহানুভুতি কি —মানুষ পেতে পারেনা ও বন্ধু। কালজয়ী কন্ঠশিল্পী ভূপেন হাজারিকার গানের সেই পংতী গুলো আজও মানুষের হৃদয়ের মাঝে দোলা দিয়ে আসছে। একজন মানুষের জন্মই বোধ হয় অপরের মঙ্গল করার জন্য। একজনের সহানুভুতি অপর জন পেতে পারে গানের এই কথা গুলো আজ বাস্তবে দেখা দিয়েছে আদমদীঘির গোড়গ্রামের ছবের আলীর ছেলে দুরারোগ্য ব্যধিতে আক্রান্ত ফুটপাতের ক্ষুদ্র ভাজা বিক্রেতা দরিদ্র রুবেল হোসেন (৪০) এর জীবনে। একদিন যে রুবেল আদমদীঘি সদর বাসস্ট্যান্ডের যাত্রী ছাউনিতে ফুটপাতে বসে বিভিন্ন ভাজা বিক্রি করে ক্রেতাদের মন জয় করে নিজের সংসারের স্ত্রী ও দুই মেয়ে নিয়ে স্বাচ্ছন্দে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিল। আজ সেই তরতাজা ভাজা বিক্রেতা রুবেল দূরারোগ্য ব্যধিতে আক্রান্ত হয়ে শয্যাশায়ী হয়ে অর্থের অভাবে চিকিৎসা করতে না পেরে ধুঁকে ধুকে মরতে বসেছে। তাকে বাঁচাতে হলে অনেক অর্থের প্রয়োজন। কিন্ত সেই অর্থ নেই তার চিকিৎসা করানোর। রুবেলের বড় ভাই সোহেল হোসেন জানায়, প্রায় দুই বছর আগে তার পেটের ব্যাথা অনুভব হওয়ার পর থেকেই চিকিৎসা করাতে রুবেলের সহায় সম্বল বিক্রি এমনকি অনেকের নিকট সাহায্য সহযোগীতা নিয়ে দেশে ও ভারতে চিকিৎসা করানো হয়। বর্তমানে চিকিৎসকের পরামর্শমতে রুবেলের অপারেশন করানো জরুরি প্রয়োজন। এছাড়া এখন প্রতি মাসে প্রায় ৩০ হাজার টাকার ঔষধসহ চিকিৎসা খরচ দরকার। কিন্ত এতো টাকা জোগার করা তার পক্ষে সম্ভব নয়। রুবেল এখন প্রায় কংকালসার অবস্থায় শয্যাশায়ী হয়ে বিছানায় রয়েছে। অর্থের অভাবে চিকিৎসা করানো সম্ভব হচ্ছেনা। তার পরিবার রুবেলকে বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীসহ সমাজের বিত্তবানদের নিকট আর্থিক সাহায্য কামনা করেছেন। তাকে সাহায্য পাঠানোর বিকাশ ও যোগাযোগ নম্বর -০১৭৫১-৫৯৬২৯৫-০১৯৩৪-৩৫৯৫৩৩।

Facebook Comments

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00