আখের রস নাকি ডাবের পানি

আখের রস নাকি ডাবের পানি
bodybanner 00

গরমের এ সময় আখের রস ও ডাবের পানি অনেকের পছন্দ। এ দুটি উপকরণ শরীরের জন্য বেশ উপকারী। সব বয়সের মানুষ ডাবের পানি ও আখের রস খেতে পারে। আখের রস ও ডাবের পানির পুষ্টিগুণ সম্পর্কে জানালেন ঢাকার অ্যাপোলো হাসপাতালের পুষ্টি বিভাগের প্রধান তামান্না চৌধুরী।

আখের রস
* প্রচুর পরিমাণ ক্যালরি রয়েছে।
* যাঁরা দুর্বল বা ক্লান্ত থাকেন, তাঁরা খেলে উপকার পাবেন।
* খাওয়ার রুচি কম এমন মানুষ আখের রস খেতে পারে। এর ফলে তাদের রুচি বাড়বে।
* জন্ডিস কমাতে আখের রস কার্যকর ভূমিকা পালন করে।
* শিশুদের বৃদ্ধির জন্য এই রস খাওয়াতে পারেন।
* আখের রস চিবিয়ে খেলে মুখের ব্যায়াম হয়।
* উন্মুক্ত স্থানের মেশিনে ভাঙানো আখের রস খাওয়া উচিত নয়।
* আখের রসে চিনির মাত্রা বেশি। তাই আখের রস খেলে ওজন বেড়ে যেতে পারে।

ডাবের পানি
* পানির পরে সবচেয়ে নিরাপদ উপকরণ হলো ডাবের পানি। পানিশূন্যতা রোধ করতে উপকারী।
* ডাবের পানিতে প্রচুর পরিমাণ পটাশিয়াম রয়েছে। রক্তে পটাশিয়াম কমে গেলে ডাবের পানি ওষুধের মতো কাজ করে।
* অতিরিক্ত গরমের সময় ডাবের পানি খেলে হিটস্ট্রোক থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।
* মাংসপেশির জন্য ডাবের পানি বেশ কার্যকরী।
* ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে বমি হলে ডাবের পানি খেতে পারেন। এতে ভালো ফল পাওয়া যাবে।
* রোদে বের হওয়ার আগে ডাবের পানি খেলে মাইগ্রেন ব্যথার আশঙ্কা কমে যায়।
* বয়স্ক ডাবের পানির চেয়ে কচি ডাবের পানি স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।
* কিডনি রোগীদের ডাবের পানি খাওয়া থেকে বিরত থাকা উচিত। অথবা চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী খাওয়া উচিত।
* ডাবের পানি ৪ থেকে ৬ ঘণ্টা খোলা রাখার পর ফেলে দেওয়া উচিত।

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

bodybanner 00